Amit Shah in Coochbehar: 'নির্বাচন শেষ হতে হতে মমতা দিদিও জয় শ্রীরাম বলবেন', কোচবিহারে বললেন অমিত শাহ
কোচবিহারে অমিত শাহ (Photo: ANI)

কোচবিহার, ১১ ফেব্রুয়ারি: কোচবিহার (Coochbehar) থেকে আজ বিজেপির পরিবর্তন যাত্রার সূচনা করতে রাজ্যে এসেছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ (Union Home Minister Amit Shah)। বেলা সাড়ে ১২ টা নাগাদ কোচবিহারে এসে পৌঁছান তিনি। সরাসরি রাসমেলার মাঠে চলে যান তিনি। কোচবিহারের রাসমেলা ময়দান থেকেই পরিবর্তন যাত্রার সূচনা করেন। এরপর সভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে নানা ইশুতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee), অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় ও তৃণমূল সরকারকে আক্রমণ করেন।

এক নজরে অমিত শাহের বক্তব্য:

  • এই পরিবর্তন যাত্রা বাংলার পরিবর্তনের জন্য। এই পরিবর্তন যাত্রা অনুপ্রবেশকারীদের রুখে দেওয়ার জন্য। ‘বিজেপি ক্ষমতায় এলে পাখিও অনুপ্রবেশ করতে পারবে না।
  • পিসি-ভাইপোর দুর্নীতি শেষ করার পরিবর্তন যাত্রা। এই পরিবর্তন যাত্রা কৃষকদের দুর্দশা দূর করার জন্য। এই পরিবর্তন যাত্রা সোনার বাংলা তৈরি করার জন্য।
  • এবার ২০০-র বেশি আসন জিতে বিজেপি ক্ষমতায় আসবে। এই পরিবর্তন যাত্রা বোমাবাজি বন্ধ করার জন্য। নারায়ণী সেনা মুঘলদের দিনে তারা দেখিয়ে ছেড়েছিল।
  • এত বছর ধরে কংগ্রেস, বাম, তৃণমূল এসেছে। রাজবংশীদের সংস্কৃতির সম্মান হয়নি। ৫০০ কোটি টাকা দিয়ে রাজবংশী সংস্কৃতি কেন্দ্র তৈরি হবে। ২৫০ কোটি টাকা দিয়ে পঞ্চানন বর্মার নামে স্মারক তৈরি হবে। এই অঞ্চলকে বিশেষ পর্যটন কেন্দ্র হিসাবে গড়ে তোলা হবে।

আরও পড়ুন: Rajnath Singh On LAC: প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা থেকে সেনা সরাচ্ছে চিন, লোকসভায় বললেন রাজনাথ

  • বাংলার নির্বাচন এবার ঐতিহাসিক নির্বাচন হবে। বাংলার মানুষ ঠিক করে ফেলেছে এবার পরিবর্তন হবে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কৃষকদের নামের তালিকা পঠাননি এখনও। বিজেপি সরকার এলে প্রথম মন্ত্রিসভার বৈঠকেই সিদ্ধান্ত। কৃষকদের অ্যাকাউন্টে ১৮ হাজার টাকা দেওয়া হবে।
  • বাংলায় জয় শ্রীরাম বলা অপরাধ। কারণ এখানে বিশেষ সম্প্রদায়ের মানুষকে তোষণ করা হয়। ভোট শেষ হতে হতে মমতাও জয় শ্রীরাম বলবেন। জয় শ্রী রাম এখানে বলবে না তো কি পাকিস্তানে বলবে? জয় শ্রী রামে আপনার অপমান লাগে কেন?
  • মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নরেন্দ্র মোদির আয়ুষ্মান ভারত যোজনা চান না। বিজেপি জিতলে এক সপ্তাহের মধ্যে সবাই এই যোজনা পাবেন। মমতা আটকাতে পারবেন না কারণ তিনি মুখ্যমন্ত্রী হবেন না। মোদি সরকার গরিবের কল্যাণের জন্য প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।
  • মোদি সরকার গরিবদের উন্নয়নে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ, আর মমতা দিদি ভাইপোকে মুখ্যমন্ত্রী বানাতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।
  • ভয় না পেলে এবারই ভাইপোকেই মুখ্যমন্ত্রী করতেন মমতা। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ব্যর্থ মুখ্যমন্ত্রী। মোদির বিকাশ, মমতার বিনাশ মডেলের মধ্যে মানুষ বাছবেন।
  • এবার গুন্ডা দিয়ে বাংলায় নির্বাচন হবে না। কাউকে ভোট দিতে বাধা দেওয়া যাবে না। মমতা নিজেই সিদ্ধান্ত নিতে পারছেন না কোথা থেকে দাঁড়াবেন। রাজনৈতিক হত্যায় বাংলা এক নম্বরে। মহিলাদের ওপর অত্যাচারেও বাংলা এক নম্বরে। ১৩০ জন বিজেপি কর্মী খুন হয়েছেন। একজন অপরাধীকেও ধরেনি মমতা দিদির সরকার।
  • এই বাজেটে চা-বাগানের শ্রমিকদের জন্য বিশেষ প্যাকেজ দেওয়া হয়েছে। উত্তরবঙ্গকে সারা দেশের মধ্যে অন্যতম পর্যটন কেন্দ্র বানাতে চাই। বাংলার জন্য সাড়ে তিন লক্ষ কোটি টাকা প্রধানমন্ত্রী পাঠিয়েছেন। নেতাজির জন্মদিনের অনুষ্ঠানেও মোদির সঙ্গে ঝামেলা করেছেন মমতা।
  • বাংলায় ডবল ইঞ্জিন সরকার দরকার। বাংলায় দুর্গাপুজো, সরস্বতী পুজোর সঙ্গে রামনবমীও হবে। আমাদের সরকার আনুন, পাঁচবছরে আমরা সোনার বাংলা বানিয়ে দেব। পাঁচবছরে বাংলা অনুপ্রবেশকারী মুক্ত হবে।
  • কোচবিহারে সভা সেরে এসে, উত্তর ২৪ পরগনার ঠাকুরনগরের ঠাকুরবাড়ির মাঠে সভা করবেন অমিত শাহ। সভা উপলক্ষে সেজে উঠেছে ঠাকুরবাড়ি ও হরিচাঁদ-গুরুচাঁদ মন্দির।