Howrah: চোখের সামনে মেয়ের শ্লীলতাহানির প্রতিবাদ করায় হাওড়ায় খুন হলেন বাবা
প্রতীকী ছবি (Photo Credits: PTI)

কলকাতা, ২৪ জানুয়ারিঃ চোখের সামনে দশম শ্রেণীর মেয়েকে শ্লীলতাহানি হতে দেখে প্রতিবাদে ঝাঁপিয়ে পড়েন বাবা। পরিণতি, নৃশংসভাবে বাবাকে খুন হতে হল ওই এলাকারই দুই যুবকের হাতে। হাওড়ার (Howrah) ঘটনা ঘিরে চাঞ্চল্য। দুই অভিযুক্তের বিরুদ্ধে থানায় দায়ের হয়েছে অভিযোগ। তাঁদের একজনকে গ্রেফতার করেছে হাওড়া পুলিশ। অপর জনের খোঁজ চালাচ্ছে।

পুলিশ সূত্রে খবর, অভিযুক্ত যুবকরা সম্পর্কে দুই ভাই। রবিবার সন্ধেবেলা দশম শ্রেণীর ওই ছাত্রী কোচিং সেরে সাইকেল চড়ে বাড়ি ফিরছিল। সেই সময় তাঁর পথ আটকায় দুই যুবক। খবর পাওয়া মাত্রই সেখানে পৌঁছান বছর ৩৫ এর বাবা। মেয়ের শ্লীলতাহানির প্রতিবাদ করতে ছুটে আসেন তিনি। উলটে বাবাকে বেধড়ক মারধর করা হয়। গুরুতর জখম হয়ে মাটিয়ে লুটিয়ে পড়েন তিনি। রক্তাক্ত অবস্থায় তাঁকে পড়ে যেতে দেখে ঘটনাস্থল ছেড়ে পালায় দুই ভাই।

আরও পড়ুনঃ  নদী থেকে উদ্ধার পরিবারের ৭ সদস্যের মৃতদেহ

চিকিৎসার জন্যে আহত ব্যক্তিকে প্রথমে এলাকার গ্রামীণ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। কিন্তু তাঁর শারীরিক অবস্থার ক্রমাগত অবনতি ঘটায় উলুবেড়িয়া মহকুমা হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয় তাঁকে। কিন্তু শেষরক্ষা হল না। সোমবার রাতে হাসপাতালে মৃত্যু হয় তাঁর।

আরও পড়ুনঃ  পারিবারিক কলহের জেরে মাঝ রাস্তায় স্ত্রীকে ছুরিকাঘাত স্বামীর, দেখুন সিসিটিভি ফুটেজ

নাবালিকার বাবার মৃত্যুর পর পুলিশের কাছে দুই অভিযুক্তের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছে নিহতের পরিবার। মৃতার মেয়ে পুলিশকে জানায়, রবিবার সে যখন কোচিং থেকে ফিরছিল সেই সময় পাড়ার দুই যুবক তাঁকে বিরক্ত করে। তাঁর হাত ধরে টানাটানি করছিল তাঁরা। মেয়ের চিৎকার চেঁচামেচিতে ছুটে আসেন বাবা। প্রতিবাদ করার তাঁর বাবাকেই মারধর করে পালিয়ে যায় অভিযুক্তরা।

নিহতের পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে ঘটনার তদন্ত করছে হাওড়া পুলিশ। দুই ভাইয়ের একজনকে ইতিমধ্যে গ্রেফতারও করা হয়েছে। অপর জনের খোঁজ চলছে বলে জানিয়েছেন, হাওড়া গ্রামীণ পুলিশ সুপার স্বাতী ভাঙ্গালিয়া।