WB Assembly Elections 2021: রেল নিয়ে কেন্দ্রকে আক্রমণ মমতা ব্যানার্জির, বললেন 'তুমি সাধু হলে আজ, আর আমি আজ চোর বটে'
মমতা বন্দোপাধ্যায়

খড়্গপুর, ১৮ মার্চ:  মেদিনীপুর সভার পর খড়্গপুরের জনসভায় বক্তৃতা রাখেন তিনি।

খড়্গপুরের সভায় মমতা ব্যানার্জি-

ক্ষুদ্র শিল্পে ৫ লক্ষ কোটি টাকা বিনিয়োগ হবে।

রেলমন্ত্রী থাকাকালীন কত ভাল করে চালিয়েছি, আজ ওরা বিক্রি করে দিচ্ছে। ব্যাঙ্কে মানুষ টাকা রাখে, যদি ব্যাঙ্ক বন্ধ হয়ে যায় তখন টাকা কীভাবে তুলবেন? দুঃসহ গরমের থেকেও দুঃসহ অত্যাচার বিজেপির। তুমি সাধু হলে আজ, আর আমি আজ চোর বটে।

রেলকে বিক্রি করে দেওয়ার চেষ্টা করছে কেন্দ্র। রেলকর্মীদের কাছে আবেদন বিজেপিকে একটা ভোটও নয়।

বহিরাগত গুণ্ডাদের কাছে বাংলা ছেড়ে দেওয়া যাবে না।

মাওবাদী বন্ধুদের বলব সিপিএমকে ভোট দেবেন না।

সারা বছর মিথ্যে কথার গ্যাস বেলুন আর ভোট (WB Assembly Elections 2021) আসতেই ক্যাশ বেলুন নিয়ে পড়েছে বিজেপি নেতৃত্ব। মেদিনীপুরে গড়বেতার সভা থেকে এভাবেই পদ্ম শিবিরকে কটাক্ষ করলেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, “আমরা সাধ্যমতো দিচ্ছি। আর নরেন্দ্র মোদি রান্নার গ্যাস ও কেরোসিনের দাম বাড়িয়েছে। ওরা মন্দির মসজিদকে টাকা দেবে ভোট চাইবে। আপনারা বলবেন অনেক হার্মাদ দেখেছি ভয় পাব না। সিপিএমের হার্মাদগুলো বিজেপিতে গিয়ে জুটেছে। সেই পচা সিপিএমই এখন পচা বিজেপি। ভোটটা মা মাটি মানুষের দলই পাবে, কারণ সবার প্রতি আমার বিশ্বাস রয়েছে। নাহলে এই রোদ্দুরের মধ্যে এত মানুষ আমার সভায় আসত না। জঙ্গলের মানুষ জঙ্গলের অধিকার পাবে। আদিবাসীদের জমি কাড়ব না। কেউ বঞ্চিত হবেন না।” আরও পড়ুন-Satish Kaushik Tests Positive for COVID-19: করোনা আক্রান্ত সতীশ কৌশিক, ভালবাসা পাঠালেন অনুপম খের

মমতা বললেন, "আমাদের ভোটটা দেবেন। ওদের হাতে একটা কার্ড আছে, সেটা দেখিয়েই নানজনকে নাগরিক তালিকা থেকে বাদ দেবে ওরা। আমরা তা করতে দেব না। আমি আপনাদের পাহারাদার, যতক্ষণ শ্বাস চলবে ততক্ষণ মাথা নত করব না। মাথা নত করতে হলে মানুষের সামনে করব। মানুষ।কে জয়যুক্ত করতে এই রাজনৈতিক যুদ্ধে সবাইকে পরাস্ত করতে হবে। যাঁরা বলেন বাংলায় কিছু হয়নি, তাঁরা জেনে রাখুন বাংলায় ৪০ শতাংশ দারিদ্র্য কমেছে। ভাল থাকবেন, সুস্থ থাকবেন। থান, শ্মশান, সবুশ্রী, খাদ্যসাথী, বিনা পয়সায় বাড়ি। এমন কোনও জায়গা নেই যেখানে আমি কাজ করিনি।"

কৃষকদের খুব বিপদ। সব কেড়ে নেবে মোদি সরকার। আপনারা ঘরেও কাজ করন। বাইরেও কাজ করেন। তাই বলুন, শান্তি চাই, দাঙ্গা চাই না। গড়বেতায় মাওবাদী উপদ্রব ছিল, এখন সেসব অতীত। আগে ৩০০ মানুষ বছরে খুন হত। এখন সেসব হয় না। আমার পায়ে চোট,  তবে মা বোনেদের পায়েই আগামীর পথচলা খুঁজে নেব।এখন ফ্রিতে রেশন পাচ্ছেন। ভেটের পরে দুয়ারে রেশন পৌঁছে দেব।