ED Attacked by Mob in West Bengal: বিজেপির 'প্ররোচনার' ফল, সন্দেশখালিতে ইডি-র উপর হামলায় ব্যাখা কুণালের
Photo Credits: ANI

রাজ্যের রেশন দুর্নীতি মামলায় (Ration Scam Case) বনগাঁ পুরসভার প্রাক্তন চেয়ারম্যান শঙ্কর আঢ্যর (Shankar Adhya) শ্বশুরবাড়িতে হানা দিল ইডি। আজ শুক্রবার সাত সকালে উত্তর ২৪ পরগণা-র বনগাঁ শিমূলতলায় তৃণমূল নেতার শ্বশুর বিনয়কুমার ঘোষের বাড়িতে পৌঁছে যায় কেন্দ্রীয় তদন্তকারী দল। তবে কেবল শঙ্কর আঢ্যের শ্বশুরবাড়ি-ই নয় এদিন দুই ২৪ পরগনা ও কলকাতার একাধিক জায়গায় পৌঁছে গিয়েছেন ইডি-র তদন্তকারীরা। উত্তর ২৪ পরগণার সন্দেশখালিতে অভিযান চলাকালীন কেন্দ্রীয় তদন্তকারী দলের উপর স্থানীয় বাসিন্দাদের হামলার অভিযোগ উঠেছে। প্রায় ২০০ জনের একটি দল হামলা চালিয়েছে বলে জানা যাচ্ছে। ইড-র (ED) গাড়িতে ভাঙচুর করেছে। এই হামলা প্রসঙ্গে মুখ খুললেন তৃণমূল মুখপাত্র কুণাল ঘোষ (Kunal Ghosh)। এই ঘটনাকে 'উস্কানি'র প্রভাব বলে ব্যাখা দিলেন তিনি।

কুণাল বললেন, 'সন্দেশখালিতে যা ঘটেছে তা প্ররোচনা প্রভাব। পশ্চিমবঙ্গে বিজেপির নির্দেশে কেন্দ্রীয় সংস্থা এবং বাহিনী তৃণমূল নেতা কর্মীদের বাড়িতে গিয়ে হয়রানি করছে। নেতিবাচক বিবৃতি ছড়াচ্ছে। যা মানুষকে উস্কে দিচ্ছে। আমাদের কাছে খবর আছে, সন্দেশখালিতেও তাই ঘটেছে'।

বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী-র (Suvendu Adhikari) নাম উল্লেখ করে কুণালের মন্তব্য, শুভেন্দু অধিকারী যাকে বিজেপি নিজে চোর বলেছিল তাঁর বাসভবনে কোনো অভিযান হয়নি। কেবল বেছে বেছে তৃণমূল নেতা মন্ত্রীদের বাড়িতে তল্লাশি অভিযান চালাচ্ছে কেন্দ্রীয় সংস্থা।

কী বলছেন কুণাল, দেখুন... 

রাজ্যবাসীর উদ্দেশ্যে তৃণমূল মুখপাত্রের বার্তা, 'ওরা (বিজেপি) আপনাদের উস্কে দেওয়ার চেষ্টা করবে। কিন্তু আপনারা কোন রকম প্ররোচনায়  পা দেবেন না। মিডিয়ার একটা অংশ ওদের সঙ্গে রয়েছে। তাই মিডিয়ার উপর কোনরকম ক্ষোভ প্রকাশ করবেন না। ওরা গণ্ডগোল বাধাতে চায়। কিন্তু আপনারা তাতে সাড়া দেবেন না। আইনকে নিজের কাজ করতে দিন।