East West Metro: 'মুখ্যমন্ত্রীকে আমন্ত্রণ জানিয়ে চিঠি পাঠানো হয়েছে', রাজ্যের দাবি ওড়াল ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রো কর্তৃপক্ষ
ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রো (Photo: Twitter)

কলকাতা, ১৩ ফেব্রুয়ারি: আজ থেকেই চালু হয়ে যাচ্ছে ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রো ( East West Metro)। প্রথম পর্যায়ে সল্টলেক সেক্টর ফাইভ থেকে সল্টলেক স্টেডিয়াম পর্যন্ত চলবে ট্রেন। আগামীকাল থেকে পুরোদমে ট্রেন চলবে ওই লাইনে। ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর উদ্বোধন উপলক্ষ্যে এদিন শহরে রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েল (Railway Minister Piyush Goyal)। এদিকে অনুষ্ঠানে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জিকে (Mamata Banerjee) আমন্ত্রণ জানানো হয়নি বলে যে খবর বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে তা ওড়াল মেট্রো রেল কর্তৃপক্ষ। তারা জানিয়েছে, গতকালই মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জিকে আমন্ত্রণ জানিয়ে চিঠি পাঠানো হয়েছে। এরপর আজ নবান্নে যান মেট্রোর এক আধিকারিক। নিজে সশরীরে গিয়ে ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মুখ্যমন্ত্রীকে আমন্ত্রণ জানান তিনি। মেট্রোর তরফে জানানো হয়েছে, রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়ালের নির্দেশে মুখ্যমন্ত্রীকে নিমন্ত্রণ করতে যাওয়া হয়। আজ সকালে মন্ত্রী ফোন করে সশরীরে গিয়ে নিমন্ত্রণ করতে বলেন মুখ্যমন্ত্রীকে। তাঁর সচিব আমন্ত্রণের চিঠি প্রাপ্তির কথা স্বীকার করেছেন বলেও দাবি করেছে মেট্রো কর্তৃপক্ষ।

এদিকে মেট্রো রেল দাবি করলেও কার্ডে আমন্ত্রিতদের তালিকায় নাম নেই মুখ্যমন্ত্রীর। কার্ডে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়, স্থানীয় বিধায়ক তথা মন্ত্রী সুজিত বসু, সাংসদ কাকলি ঘোষ দস্তিদার ও বিধাননগরের মেয়র কৃষ্ণা চক্রবর্তীর। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জিকে আমন্ত্রণ জানানো হয়নি বলে অভিযোগ করে রাজ্য। এমনকি পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম, মুখ্যসচিব কাউকেই আমন্ত্রণ জানানো হয়নি বলে রাজ্যের তরফে দাবি করা হয়। এই অভিযোগকে ঘিরে ফের রাজ্য-কেন্দ্র সংঘাতের সুর চড়ে। জানা যায়, স্থানীয় সাংসদ কাকলি ঘোষ দস্তিদার ও বিধায়ক সুজিত বসুকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। কিন্তু মুখ্যমন্ত্রীকে আমন্ত্রণ না জানানোর অভিযোগে রাজ্যের তরফে বয়কট করা হয় ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। আরও পড়ুন: East-West Metro: আজ ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর উদ্বোধনে শহরে রেলমন্ত্রী পীযূষ গয়াল, আমন্ত্রিত নন মমতা ব্যানার্জি

বাম আমলে টালিগঞ্জ থেকে গড়িয়া মেট্রোর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের প্রসঙ্গ টেনে, এঘটনা 'ইতিহাসের পুনরাবৃত্তি' বলে কটাক্ষ করেন বিজেপি নেতা মুকুল রায়। বিজেপির মনোজ টিক্কা তোপ দাগেন, "আমাদেরও কোনও কর্মসূচিতে রাজ্য সরকার ডাকে না। আর ডাকলেও তো উনি জান না। এই সংস্কৃতি উনি-ই চালু করেছেন।"অন্যদিকে, পরিষদীয় মন্ত্রী তাপস রায় তোপ দাগেন, "অসৌজন্যের রাজনীতি করতে অভ্যস্ত বিজেপি। বিজেপির থেকে এর বেশি কিছু আশা করা যায় না।" পর্যটনমন্ত্রী গৌতম দেব বলেন, "তালিবানি কায়দায় দেশ চালাচ্ছে বিজেপি। মেট্রো প্রকল্পের জন্য মুখ্যমন্ত্রী যা করেছেন, রাজ্যের মানুষ তা মনে রাখবেন।"