WB CM Mamata Banerjee: বক্তার তালিকায় নাম নেই, প্রধানমন্ত্রীর কোভিড সংক্রান্ত ভিডিও বৈঠকে থাকছেন না মমতা ব্যানার্জি?
মোদি ও মমতা (Photo Credits: ANI)

কলকাতা ও নতুন দিল্লি, ১৭ জুন: দেশের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে বিভিন্ন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে আজ বুধবার বারতালাপ করতে চলেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তবে শোনা যাচ্ছে, এই বার্তালাপে হয়তো থাকবেন না পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। এই মর্মে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলাপ আলোচনায় যে বক্তার তালিকা তৈরি হয়েছিল তাতে প্রথম মমতা ব্যানার্জির (Mamata Banerjee) নাম ছিল না। সোমবার সেই তালিকা প্রকাশ হতেই রাজ্য সরকারের তরফে অসন্তোষ ঘনীভূত হয়। কেননা ৬ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সে বক্তব্য রাখতে পারবেন, এমনটাই তালিকায় ছিল। তাবে ছয় রাজ্যের মধ্যে ছিল না পশ্চিমবঙ্গের নাম। স্বাভাবিকভাবেই এই তালিকা দেখবার পর বেজায় চটেছেন মমতা।

ভিডিও কনফারেন্সে বক্তার তালিকায় নেই মমতা ব্যানার্জির নাম। এনিয়ে তৃণমূল সাংসদ কাকলি ঘোষদস্তিদারকে প্রশ্ন করা হলে সংবাদ মাধ্যম এনডি টিভির সামনে ক্ষোভ উগরে দেন তিনি। পাল্টা প্রশ্ন ছুঁড়ে দেন, কেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জিকে এতটাই ভয় পান যে তাঁকে বক্তা হিসেবে চান না। তহলে ভিডিও কনফারেন্সের জন্য কেন তাঁকে ডেকেছেন? একই রকম প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন তৃণমূলের রাজ্যসভা সাংসদ দীণেশ ত্রিবেদী ও পুর ও নগরোন্নয়ন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। গত সপ্তাহেই ভার্চুয়াল ব়্যালিতে মমতা ব্যানার্জির বিরুদ্ধে অভিযোগ এনেছেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ। এই অভিযোগের বিরুদ্ধে মমতাকে এখনও মুখ খুলতে দেখা যায়নি। ওই ভার্চুয়াল ব়্যালিতে অমিত শাহকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির সম্পর্কে কটুক্তি করতে দেখা যায়। তিনি বলেন, “মমতা দিদির দেওয়া নাম করোনা এক্সপ্রেসে চড়েই তাঁকে রাজ্য ছাড়তে হবে।” আরও পড়ুন-Martyred Bengal Jawan: লাদাখে ইন্দো-চিন সীমান্তে লাল ফৌজের হামলায় শহিদ বাংলার জওয়ান রাজেশ ওরাঁও

বুধবার দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা (COVID-19 Cases) ৩ লক্ষ ৫০ হাজার ছাড়িয়ে গেল। স্বাস্থ্য মন্ত্রকের রিপোর্ট অনুযায়ী গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ১০ হাজার ৯৭৪ জন। একই সঙ্গে মঙ্গলবার সারা দিনে করোনায় মৃতের সংখ্যা আগের সব রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে। হিসেব বলছে, গতকাল মারণ রোগের বলি হয়েছেন ২০০৩ জন। সবমিলিয়ে দেশে করোনার মৃত্যু মিছিলে শামিল ১১ হাজর ৯০৩ জন। দেশে এই মুহূর্তে মোট করোনা আক্রান্ত ৩ লক্ষ ৫৪ হাজার ৬৫ জন। এর মধ্যে ১ লক্ষ ৫৫ হাজার ২২৭ জন হাসপাতালে ভর্তি আছেন। সুস্থ হয়ে বাড়িতে ফিরেছেন ১ লক্ষ ৮৬ হাজার ৯৩৫ জন। করোনা আক্রান্তের সংখ্যার বিচারে দেশের মধ্যে ধারাবাহিকভাবে এগিয়ে রয়েছে মহারাষ্ট্র।