Krishak Bandhu Scheme: মুখ্যমন্ত্রীর হাত ধরে শুরু 'কৃষকবন্ধু' প্রকল্প, ১০ হাজার টাকা করে পাবেন কৃষকেরা
মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় (Picture Credits: ANI)

কলকাতা, ১৭ জুন: বৃহস্পতিবার নবান্নে সাংবাদিক বৈঠকে 'কৃষকবন্ধু' প্রকল্পে (Krishak Bandhu Scheme) ভাতা বৃদ্ধির ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় (CM Mamata Banerjee)।নির্বাচনের আগে এই প্রকল্পে ভাতা বাড়ানোর প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। সেই প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী, আজ থেকেই কৃষক বন্ধু প্রকল্পের টাকা পাবেন কৃষকরা। আগে এই প্রকল্পে বছরে ৫ হাজার টাকা দেওয়া হত। যা বদলে বছরে ১০ হাজার টাকা করে দেওয়া হবে কৃষকদের।

ভার্চুয়াল সাংবাদিক বৈঠকের মধ্যে দিয়ে এই প্রকল্প চালু করলেন মুখ্যমন্ত্রী। বৈঠকে তিনি জানান,"এটি খুব বড় প্রকল্প। সারা ভারতবর্ষ ও পশ্চিমবঙ্গে প্রথম। খেতমজুর, বর্গাদারেরা পাবেন বছরে ৪ হাজার টাকা।" কেন্দ্রের কিষাণ সম্মান যোজনাকে কটাক্ষ করে তিনি জানান,"কেন্দ্র কিন্তু সব কৃষককে টাকা দিচ্ছে না। আমরা দিচ্ছি।" কেন্দ্র থেকে এখনও য়াসের অর্থ সাহায্যের টাকা এসে পৌঁছয়নি বলেনি এদিনই ক্ষোভ প্রকাশ করেন মুখ্যমন্ত্রী।

আরও পড়ুন, মুকুল রায়ের নিরাপত্তা বলয় সরিয়ে নিল স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক

কৃষকবন্ধু প্রকল্প অনুযায়ী, খরিফ ও রবি মরসুমের শুরুতে বছরে দু'টি সমান কিস্তিতে সরাসরি কৃষকদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে পৌঁছে যাবে। ইতিমধ্যেই নথিভুক্ত কৃষক ও ভাগচাষিরা এই নতুন প্রকল্পের উপভোক্তা হিসাবে বিবেচিত হবেন। পাশাপাশি, কৃষকবন্ধু প্রকল্পে মৃত্যুজনিত সহায়তায় ১৮-৬০ বছর বয়সি কৃষকের মৃত্যু হলে তাঁর পরিবারকে এককালীন ২ লক্ষ টাকার আর্থিক সহায়তা দেওয়া হয়। ৭০ লক্ষ কৃষককে কিষাণ ক্রেডিট কার্ড দেওয়া হয়েছে। আরও ২০ লক্ষ কার্ড দেওয়া হবে।

এদিন বৈঠকে মাধ্যমিক, উচ্চমাধ্যমিকের মূল্যায়ন করা হবে, তা আগামী কাল জানানো হবে বলে জানান মমতা।