Kolkata: ১ মাস স্কুলে ঢুকতে পারবেন না প্রধান শিক্ষক, আবার নজিরবিহীন রায় বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের
Calcutta-High-Court (Photo Credits: PTI)

কলকাতা, ১৩ মে: নজিরবিহীন রায় ও কলকাতা হাইকোর্টের (Calcutta High Court) বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় (Justice Avijit Gangopadhyay) যেন সমার্থক হতে চলেছে। শুক্রবারও তিনি একটি নজিরবিহীন রায় দিয়েছেন। এক শিক্ষকের (Teache) বেতন আটকে রাখার অপরাধে এক প্রধান শিক্ষককে (Headmaster) অভিনব শাস্তি দিয়েছেন তিনি। বিচারপতি নির্দেশ দিয়েছেন, এক মাস ওই প্রধান শিক্ষক স্কুলে ঢুকতে পারবেন না। এখানেই শেষ নয়। প্রধান শিক্ষক যাতে কোনওভাবেই স্কুলে ঢুকতে না পারেন, তার জন্য স্থানীয় থানাকে ২ জন সশস্ত্র কর্মী মোতায়েন করার নির্দেশও দিয়েছেন।

উপরে উল্লিখিত প্রধান শিক্ষকের নাম শেখ সফি আলম। তিনি উত্তর ২৪ পরগনা জেলার বারাসাত মহকুমার গোলাপবাড়ি পল্লিমঙ্গল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক। একই বিদ্যালয়ের শিক্ষক রাজু জানা কলকাতা হাইকোর্টে প্রধান শিক্ষক সফি আলমের বিরুদ্ধে একটি পিটিশন দাখিল করেন। রাজু অভিযোগ করেন, ২০১৮ থেকে ২০২০ সাল পর্যন্ত ২ বছর তাঁর বেতন আটকে রেখেছেন প্রধান শিক্ষক। মামলাটি দীর্ঘ সময় ধরে চলে এবং শুক্রবার চূড়ান্ত শুনানি ছিল। আরও পড়ুন: Sheikh Khalifa bin Zayed Al Nahyan Dies: দীর্ঘ রোগভোগের পরে প্রয়াত সংযুক্ত আরব আমীর শাহির প্রেসিডেন্ট শেখ খলিফা বিন জায়েদ নাহইয়ান

বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায় আলমকে ব্যক্তিগতভাবে আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ দেন। চূড়ান্ত শুনানির সময়, বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায় আলমকে জিজ্ঞাসা করেছিলেন যে তিনি যে স্কুলের প্রধান শিক্ষক সেই স্কুলের একজন শিক্ষকের বেতন আটকে রাখার কোনও ক্ষমতা তাঁর আছে কি না। তবে এ প্রশ্নের কোনও সদুত্তর পাওয়া যায়নি আলমের কাছে।

বিচারপতি তখন তাঁর রায় ঘোষণা করেন। প্রধান শিক্ষক ১০ জুন পর্যন্ত স্কুলে ঢুকতে পারবেন না বলে জানিয়ে দেন বিচারপতি। সেই সময় পর্যন্ত স্কুলের গেটে ২ জন সশস্ত্র প্রহরী মোতায়েন করার জন্য স্থানীয় থানাকেও নির্দেশ দেন।