যুবকের মুণ্ডু হীন দেহ উদ্ধার কাঁকিনাড়ায়, ধরহীন মুণ্ডু মিলল ট্রেনের মধ্যে
প্রতীকী ছবি(Photo Credit: PTI)

কাঁকিনাড়া, ৩ জুলাই:  মুণ্ডুহীন দেহ উদ্ধারকে কেন্দ্র করে ফের উত্ত্যপ্ত কাঁকিনাড়া। বুধবার সকালে কাঁকিনাড়া রেলগেটের কাছে যুবকের মুণ্ডুহীন দেহ উদ্ধার। তারপর ট্রেনের কামরা থেকে উদ্ধার হয়েছে ধড়হীন মুণ্ডু। এই ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়। বুধবার সকালে কাঁকিনাড়া ২৯ নম্বর রেলগেটের কাছ থেকে উদ্ধার হয়েছে এক যুবকের মুণ্ডহীন দেহ। ট্রেন অ্যাক্সিডেন্টে যুবকের মৃত্যু হয়েছে, নাকি তাঁকে খুন করা হয়েছে, তা নিয়ে ধন্দে পড়ে যায় পুলিশ।

তবে প্রাথমিক তদন্তের পর পুলিশের অনুমান, মঙ্গলবার রাতে বাড়ি ফেরার সময় দুষ্কৃতীদের পাল্লায় পড়েছিলেন ওই যুবক। লুঠ-পাট চালানোর পর ওই যুবককে খুন করে দুষ্কৃতীরা। পুলিশ জানিয়েছে, মৃতদেহের কাছ থেকে একটি ফুচকার ঝুড়ি উদ্ধার হয়েছে। এদিকে দেহ পাওয়া গেলেও মাথার খোঁজ মিলছিল না। পরে বারাসতে ডাউন হাসনাবাদ লোকালে ভেন্ডারের মধ্যে থেকে একটি প্যাকেট উদ্ধার করে জিআরপি। সেই প্যাকেট থেকে প্লাস্টিকে মোড়া অবস্থায় একটি মুণ্ডু উদ্ধার হয়। পুলিশ জানিয়েছে, মৃত যুবকের নাম লালাপ্রসাদ (৩৭)। পুলিশের অনুমান উদ্ধার হওয়া মুণ্ডহীন দেহ এবং ধড়হীন মুণ্ড, একই ব্যক্তির। কিন্তু কেনওই যুবককে খুন করা হল বা কারা এই ঘটনার সঙ্গে যুক্ত সে ব্যাপারে কিছুই জানা যায়নি।

খুনের কারণ অনুসন্ধানে তদন্ত শুরু হয়েছে। কে বা কারা লালাপ্রসাদকে এমন নির্মম ভাবে খুন করেছে তা জানতে স্থানীয় বাসিন্দাদের জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেছে পুলিশ। মৃতর পরিচয় জানা গিয়েছে, তার নাম লালাপ্রসাদ। খুনের কিনারা করতে মৃতের বাড়ির লোকনকে জেরা করছে পুলিশ। দেহ শনাক্ত করণের জন্য তাঁদের খবর দেওয়া হয়েছে। লালাপ্রসাদের সঙ্গে কারও ব্যক্তিগত শত্রুতা ছিল কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এদিকে ডাউন হাসনাবাদ লোকালের ভেন্ডার কামরায় একটা পরিত্যক্ত প্যাকেট দেখেই আতঙ্ক ছড়ায় সঙ্গে সঙ্গে জিআরপি-তে খবর গেলে পুলিশকর্মীরা ঘটনাস্থলে আসেন। প্যাকেট উদ্ধারের পর খুলে দেখা যায় সেটি একটি নরমুণ্ডু। এরপরেই চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে। গোটা ঘটনায় থমথমে কাঁকিনাড়া।