Jyotipriya Mallick Arrested: পার্থ, অনুব্রত-র পর এবার জেলবন্দি বালু, মহুয়া ইস্যুতে অস্বস্তিতে তৃণমূল, কেন্দ্রীয় এজেন্সির অপব্যবহার নিয়ে পাল্টা তোপ
After Partha, Anubrata now Jyotipriya Mallick Arrested. (Photo Credits:X)

পার্থ চট্টোপাধ্যায়, অনুব্রত মণ্ডলের পর এবার জেলবন্দি রাজ্যের মন্ত্রী তথা তৃণমূলের হাইপ্রোফাইল নেতা জ্য়োতিপ্রিয় মল্লিক। কেন্দ্রীয় এজেন্সির তদন্তের জালে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘনিষ্ঠ আরও এক নেতাকে গ্রেফতার হতে হল। শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি, গরু পাচার কাণ্ডের পর এবার রেশন দুর্নীতি। একের পর এক হাইপ্রোফাইল তৃণমূল নেতা জেল খাটছেন। ঘুষ নিয়ে লোকসভায় প্রশ্নকাণ্ডে কৃষ্ণনগরের সাংসদ মহুয়া মৈত্রকে নিয়েও অস্বস্তিতে রাজ্যের শাসক দল। এর মধ্যে অভিষেক বন্দ্য়োপাধ্যায় ও ফিরহাদ হাকিমকেও দীর্ঘক্ষণ জেরা করা হয়। সব মিলিয়ে লোকসভা নির্বাচনের আগে চাপে তৃণমূল।

তবে রাজ্যের শাসক দলের কাছে সুবিধা হল-সিবিআই, ইডি-র হাতে বিরোধীদের গ্রেফতারি এখন আর সেভাবে আলোড়ন ফেলে না। বরং রাজনৈতিক প্রতিহিংসার অভিযোগে বিজেপিকে কোণঠাসা করা যায়। তবে এটাও ঠিক হাইপ্রোফাইল নেতাদের গ্রেফতারি দলের নিচুতলার মনোবল নড়ে। আরও পড়ুন-'জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের গ্রেফতারি নিশ্চিত ছিল', মন্তব্য সুকান্ত মজুমদারের

অবিজেপি শাসিত রাজ্যে সিবিআই, ইডি বেশ সক্রিয় হয়ে রাজ্যের মন্ত্রী, শাসক দলের হাইপ্রোফাইল নেতাদের গ্রেফতার, বাড়িতে হানা দেওয়া হচ্ছে। দিল্লি থেকে ছত্তিশগড়, বাংলা- রাজস্থানে বারবার সেটা দেখা যাচ্ছে। দিল্লিতে অরবিন্দ কেজরিওয়ালের ঘনিষ্ঠ তিন নেতা- মণীশ সিসোদিয়া, সত্যেন্দ্র জৈন, সঞ্জয় সিংকে আবগারি দুর্নীতি থেকে অর্থ পাচার মামলায় গ্রেফতার করা হয়েছে। অবিজেপি শাসিত বাংলাতেও একইরকম কায়দায় গ্রেফতারি চলছে রাজ্যের হাইপ্রোফাইল-নেতা মন্ত্রীদের। সূত্রের খবর রাজস্থান, মধ্যপ্রদেশ সহ পাঁচ রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচন মিটলেই INDIA-র নেতারা বিজেপির কেন্দ্রীয় এজেন্সির অপব্যবহার নিয়ে দেশজুড়ে আন্দোলনে নামছে।

পুজো মিটতেই বালুর গ্রেফতারির পর রাজ্য রাজনীতিতে ঝড় বইতে শুরু করেছে। লোকসভার আগে আরও কয়েকজন হাইপ্রোফাইল তৃণমূল-নেতা মন্ত্রী গ্রেফতার হতে পারেন বলে জোর জল্পনা। গত বেশ কয়েক বছর ধরে উত্তর ২৪ পরগণায় তৃণমূলের একচেটিয়া জয়যাত্রায় বড় ভূমিকা নিয়েছেন জ্যোতিপ্রিয়। অনেকটা পিছিয়ে থেকেও ২০২১ বিধানসভায় হাবরায় অনায়াসে গড় রক্ষা করেছিলেন বালু। বনমন্ত্রক পেয়ে দক্ষতার সামনেই সামালাচ্ছিলেন জ্যোতিপ্রিয়। কিন্তু শেষ অবধি রেশন দুর্নীতিতে গ্রেফতার। জ্য়োতিপ্রিয় বলছেন, গভীর ষড়যন্ত্র। বিজেপি চাইছে, জ্যোতিপ্রিয়র গ্রেফতারীর সুযোগ নিয়ে উত্তর ২৪ পরগণায় ঝাঁপাতে। ২০২৪ লোকসভার আগে বারাকপুর, বারাসত, দমদম আসন নিয়ে নতুন করে হিসেব করছে পদ্ম শিবির।