TMC MP Mimi Chakraborty: লোকসভার শীতকালীন অধিবেশনে হিট মিমি, মাকে সংসদ চত্বর ঘুরে দেখানোর পাশাপাশি পথ কুকুরদের নিয়ে কী বললেন অভিনেত্রী?
সংসদে মায়ের সঙ্গে মিমি চক্রবর্তী (Photo Credit: Twitter)

নতুন দিল্লি, ১৯ নভেম্বর: সংসদে লোকসভার শীতকালীন অধিবেশন (Winter Session of Parliament) শুরু হয়েছে। চলতি লোকসভাতেই প্রথমবারের জন্য সাংসদ হয়েছেন টলি অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী (Mimi Chakravarty)। সোমাবর অধিবেশনের প্রথমদিনই তাঁকে দেখা গেল, সঙ্গে রয়েছেন মা তাপসী চক্রবর্তী। অধিবেশন শুরুর আগেই সংসদ চত্বর মাকে ঘুরিয়ে দেখালেন মিমি। মেয়ের বদান্যতায় সংসদে পা রাখতে পেরে বেজায় খুশি মা। নিজের মুখেই শোনালেন সেকথা। নিজের খুশি গোপন করেননি তাপসীদেবী, মেয়ের কৃতিত্বে তিনি যে কতটা গৌরবান্বিত  বোধ করছেন, তা তাঁর মুখে ফুটে ওঠা অভিব্যক্তিই বলে দিচ্ছিল।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, “দিল্লিতে এসে এর আগে তো সংসদ ভবনের বাইরে থেকেই ঘুরে গিয়েছি। কারণ, সাধারণ মানুষ হিসেবে তো আর প্রবেশাধিকার সম্ভব ছিল না। তবে এই প্রথমবার মেয়ের জন্য ঢুকতে পারলাম। সেই জন্য ভীষণ গর্বিত এবং আনন্দিতও। আমি খুব খুশি। একজন মায়ের জন্য এর থেকে বেশি পাওনা আর কী-ই বা হতে পারে? জনপ্রতিনিধি হয়ে মেয়ে অধিবেশনে বক্তব্য রাখছে, এটাই তো বড় কথা।” যদিও এই শীতকালীন অধিবেশনে মিমির সঙ্গে হাজির থাকতে পারেননি সহকর্মী তথা বসিরহাটের সাংসদ অভিনেত্রী নুসরত জাহান। রবিবার রাতে শ্বাসকষ্ট নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন তিনি। সোমবার তাঁর শারীরিক অবস্থার উন্নতি হওয়ায় হাসপাতাল থেকে ছাড়া পান। তবে অধিবেশন চলবে বেশ কিছুদিন। আশা করা যায় নুসরত জাহানকেও বসিরহাটের হয়ে বক্তব্য রাখতে দেখা যাবে খুব শিগগির। আরও পড়ুন-'Entire Delhi Coughing Like Arvind Kejriwal Now': দিল্লির দূষণ ভারের দায় কেজরিওয়ালের ঘাড়ে চাপালেন বিজেপি সাংসদ, কী বললেন পারবেশ সাহিব সিং ভার্মা?

মিমি যে শুধু অভিনেত্রী নন একজন পশুপ্রেমী, এই খবর এতদিন তাঁর ভক্তরা জানতেন। আজ জেনে গেলেন দেশের সমস্ত পশুপ্রেমীরা। মঙ্গলবারের সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে মিমি পথ কুকুরদের উপরে ঘটে চলা নৃশংস অত্যাচার নিয়ে মুখ খুললেন। এবার এই অত্যাচারীদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনের দাবি তুললেন তিনি।সংসদে তিনি বলেন, 'পথকুকুরদের নিরাপত্তার জন্য কোন বিশেষ আইন নেই। প্রিভেনশন অব ক্রুয়েলিটি এগেনস্ট অ্যানিম্যাল অ্যাক্ট অফ ১৯৬০ রয়েছে বটে, কিন্তু তার আওতায় প্রতিনিয়ত চিকিৎসা, টিকাকরণ, ওষুধপত্র বা চিকিৎসার সুযোগ-সুবিধা কিছুই নেই।'