ট্রু কলারের ধরাছোঁয়ায় থাকতে চান না, কী করবেন?
photo credit:Wikimedia commons)

ট্রু কলার অ্যাপ আজ স্মার্টফোন ব্যবহারকারীকে(Smartphone user) কতই না সুবিধা দিয়েছে। এই দলে পড়েন আইফোন ব্যবহারকারীরাও। ফোন ব্যবহারেও আজকাল কেউই নিরাপদ নন, সব ধরনের সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটে হানা দিচ্ছে হ্যাকাররা। সেখানে আপনার ফোনের তথ্য জানা তো তাদের কাছে নস্যি। সেজন্যই ট্রু কলার অ্যাপ(True caller app), আপনার কাছে যে অপরিচিত নম্বর থেকে ফোনটি এল সেটি কে কেন করেছে তার একটা আবছা ধারণা তৈরি করে দেয় এই অ্যাপ। কলারের নাম কোতা থেকে ফোন করছে, ফোনটি স্প্যাম কি না তাও জানিয়ে দেয় এই ট্রু কলার। এরফলে যে সুবিধাটি আপনি পাচ্ছেন তা হল, আদৌ ফোনটি রিসিভ করবেন কি করবেন না, তা নিজেই ঠিক করে নিতে পারবেন।

কিন্তু এমন অনেকেই আছেন যাঁরা কলার হিসেবে নিজেদের পরিচয় গোপন রাখতে চান। যেমন কি না তিনি হয়তো আড়ালে থাকার জন্য ট্রু কলার অ্যাক্টিভ করেননি, কিন্তু যিনি তাঁকে ফোন করছেন বা তিনি যাঁকে ফোন করছেন তাঁর মোবাইলে সংশ্লিষ্ট অ্যাপটি অ্যাক্টিভ রয়েছে। তাই চেয়েও নিজের পরিচয় রাখতে পারছেন না। তবে এই সমস্যারও সমাধান রয়েছে। চলুন একবার দেখে নিই ট্রু কলারের দুনিয়ায় কীকরে আত্মগোপন করবেন।

আইফোন ব্যবহারকারীরা ট্রুকলার অ্যাপে ঢুকে লগ ইন করে gear আইকনে ক্লিক করুন। এরপর About ট্রুকলার বেছে নিয়ে স্ক্রল ডাউন করুন। সেখানেই Deactivate অপশন পাবেন। সেটি ক্লিক করলেই  আড়ালে থাকার ছাড়পত্র পেয়ে গেলেন।তবে এরপরেও যদি ট্রু কলারে যদি আপনার নাম থেকে যায় তাহলে Unlist পেজে গিয়ে নিজের মোবাইল নম্বর ও দেশের কোড নম্বর লিখতে হবে।  কীকারণে আত্মগোপন করতে চান তা জানলেই আসবে ‘Captcha’-কোড। সেটি  ভেরিফাই করে Unlist অপশনে ক্লিক একেবারে নিশ্চিত মুক্তি।

অন্যদিকে অ্যানড্রয়েড ফোনের ক্ষেত্রে ট্রুকলার অ্যাকাউন্টটিতে লগ ইন করুন। এবার একপাশের কোণে একটি People আইকন দেখতে পাবেন। সেটিতে ট্যাপ করে সেটিংয়ে গিয়ে  About -এ ক্লিক করুন। সেখানেই খুঁজে পাবেন Deactivate অপশনটি। সেটি ট্যাপ করলেই সমস্যার সমাধান।