TikTok Banned in India Permanently: টিকটক-সহ ৫৯টি চিনা অ্যাপের ব্যবহার চিরতরে বন্ধ হল দেশে
টিকটক (Photo Credits: Pexels)

নয়াদিল্লি, ২৬ জানুয়ারি: টিকটক-সহ (Tiktok) ৫৯টি চিনা মোবাইল অ্যাপ পুরোপুরি বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল কেন্দ্রীয় সরকার। গত বছর ১৫ জুন গালওয়ান ভ্যালিতে ভারত-চিন সীমান্ত সংঘর্ষে ভারতের ২০ জন সেনা শহিদ হন। চিন দাবি করে তাদের সেনা হতাহতের সংখ্যা ২০'র কম। তবে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (Narendra Modi) জানিয়েছিলেন, চিনা সেনা ভারত ভূখণ্ডে ঢুকতে পারেনি। ইন্দো-চিন সীমান্তে সংঘর্ষের কোপ এসে পড়ে ডিজিটাল দুনিয়ায়। টিকটক (TikTok), হ্যালো (Helo), ইউসি ব্রাউজারের (UC Browser) মতো জনপ্রিয় চিনা অ্যাপগুলি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল সাময়িকভাবে। আরও পড়ুন: India-China Tension: চিনা অ্যাপে নিষেধাজ্ঞা বৈষম্যমূলক আচরণ, সিদ্ধান্ত বদলাক ভারত, আবেদন বেইজিং-র

ভারতীয় ব্যবহারকারীদের নিরাপত্তা বিঘ্নিত হচ্ছে। এমনটাই দাবি করা হয়েছিল কেন্দ্রের তরফে। এই সংক্রান্ত বেশ কিছু তথ্য সংস্থার কাছে চেয়ে পাঠায় সরকার। কিন্তু দীর্ঘ কয়েক মাস কেটে গেলেও সঠিক কোনও প্রতিবার্তা মেলেনি অপরপক্ষ থেকে। তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থার তরফে টিকটক-সহ ৫৯টি চিনা অ্যাপকে আইনি চিঠি পাঠানো হয়। তথ্য ও প্রযুক্তি মন্ত্রক (Ministry of Information and Technology) বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছিল, এই পদক্ষেপ কোটি কোটি ভারতীয় মোবাইল এবং ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের স্বার্থ রক্ষা করবে। এই সিদ্ধান্ত ভারতীয় সাইবারস্পেসের সুরক্ষা এবং সার্বভৌমত্ব নিশ্চিত করার লক্ষ্যে পদক্ষেপ।"

অন্তর্বর্তীকালীন নিষেধাজ্ঞার তালিকায় রয়েছে ক্লাব ফ্যাক্টরি, শেয়ারইট, লাইকি, এমআই ভিডিও কল (জিওমি), উইবো, বাইডু, বিগো লাইভ, উইচ্যাট, ইউসি ব্রাউজার এবং জিওমির এমআই কমিউনিটি।