Vinod Kumar: অক্ষমতার মাপকাঠিতে ফেল করে টোকিও প্যারালিম্পিক্সে ব্রোঞ্জ পদক হারালেন বিনোদ কুমার, ভারতের পদক কমে ছয়

টোকিও, ৩০ অগাস্ট: টোকিও প্যারালিম্পিক্সে (Tokyo Paralympics 2020) ভারতের একটা পদক কমে গেল। পুরুষদের ডিসকাস F52 বিভাগে- প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে ব্রোঞ্জ জিতেছিলেন ভারতের বিনোদ কুমার। কিন্তু এই বিভাগে অংশগ্রহণ করতে যে শারীরিক অক্ষমতার মান দরকার হয়, তার থেকে শারীরিক দিক থেকে বেশি সক্ষম ছিলেন বিনোদ কুমার (Vinod Kumar)। গতকাল, বিনোদের পদক জয়ের পর তা চ্যালেঞ্জ জানানো হয়। আরও পড়ুন: প্যারালিম্পিক্সে সোনাজয়ী শ্যুটার অবনী লেখারাকে ১ কোটির পুরস্কার, ঘোষণা করলেন অশোক গেহলট

ডিসকাস F52 বিভাগে- শারীরিক অক্ষমতার যোগ্যতামানে থেকে বিনোদের হাতের জোর, মাসল পাওয়ার বেশি ছিল বলে পরে প্রমাণ হয়, এর ফলে এই ইভেন্ট তাঁর যাবতীয় ফল বাতিল করা হল। বিনোদের ব্রোঞ্জ পদক দেওয়া হল চতুর্থ স্থানে থাকা ডিসকাস থ্রোয়ারকে। এই বিভাগে রুপো জেতেন  ক্রোয়েশিয়ার ভ্লেমির সান্দোর। সোনা জেতেন পোল্যান্ডের পিটর ক্লোসেউইছ । আজ, টোকিও প্যারালিম্পিক্সের অক্ষমতার বিভিন্ন বিষয় পরিমাপ করা টেকনিক্যাল কমিটি জানায়, বিনোদ কুমারের অক্ষমতার মান বেশি থাকায় তাঁর অংশগ্রহণ বাতিল করা হল।

এর ফলে চলতি টোকিও প্যারালিম্পিক্সে ভারতের পদক সংখ্যা দাঁড়াল ৬টি। একটি সোনা, চারটি রুপো, একটি ব্রোঞ্জ।

টোকিও প্যারালিম্পিক্স (Tokyo Paralympics 2020) থেকে এদিন সকালে মহিলাদের শুটিংয়ে ভারতকে প্রথম সোনা এনে দিলেন অবনী লেখারা (Avani Lekhara)। ১০ মিটার এয়ার রাইফেল এসএইচ ১-র ফাইনালে সোনা জিতেন তিনি। ভারতীয় শুটার শুধু যে পদক জিতলেন তাই নয়, জিতলেন নজির সৃষ্টি করে। প্যারালিম্পিক্সের সর্বকালীন রেকর্ডে গড়ে ২৪৯.৬ স্কোর করে ১৯ বছর বয়সী শুটার সোনা জেতেন। এই ইভেন্টে রুপো জিতেছেন চিনের কুইপিং ঝাং। ব্রোঞ্জ পদক জিতেছেন ইউক্রেনের ইরিয়ানা স্কেটনিক।

রবিবারই টেবিল টেনিসে রুপো জিতে ইতিহাস রচনা করেছেন ভাবিনা প্যাটেল। মহিলাদের সিঙ্গলস ক্লাস ফোর ইভেন্টের ফাইনালে বিশ্বের এক নম্বর চিনের ইং ঝাউয়ের কাছে স্ট্রেট সেটে হেরে রুপো পান তিনি। ম্যাচের ফলাফল ৭-১১, ৫-১১, ৬-১১।