IND vs AUS, CWC 2023 Final: টিম ইন্ডিয়ার ২৪০-এ কাঠগড়ায় মোদী স্টেডিয়ামের বাইশ গজ, ফাইনালে আজব পিচে সাবধানী ব্যাটিং বিরাটদের
Modi Stadium Ptich. (Photo Credits:X)

রবিবার আমেদাবাদে বিশ্বকাপের ফাইনালে নরেন্দ্র মোদী স্টেডিয়ামে এক লক্ষ ৩০ হাজার সমর্থকের ভিড়। গ্যালারিতে কে নেই? সচিন তেন্ডুলকর থেকে শাহরুখ খান, সৌরভ গাঙ্গুলি থেকে রণবীর সিং, দীপিকা পাড়ুকোন। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। দেশের সব সেলেব্রিটি উপস্থিত। ফাইনালের আগে জমকালো অনুষ্ঠান, দেখার মত বায়ুসেনার এয়ার শো হল।

গোটা দেশে রোহিত শর্মা, বিরাট কোহলি, মহম্মদ সামিদের বিশ্বজয়ের প্রার্থনায় মন্দিরে পুজো-যজ্ঞ চলছে। কিন্তু যেটা নিয়ে এত কিছু সেই দিকেই নজর পড়ল না কারও। মোদী স্টেডিয়ামের পিচ কাঠগড়ায়। প্রাক্তন ক্রিকেটাররা বোর্ডের কোপ পড়ায় পিচ নিয়ে খুব বেশী সরব না হলেও, ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা কিন্তু বলছেন, ফাইনালে এমন পিচ ভাবা যায় না। বিরাট কোহলির অনবদ্য হাফ সেঞ্চুরি, আর রোহিত ঝড়ো ইনিংস না খেললে পিচ নিয়ে আরও সমালোচনা হত। আসলে বল সেভাবে ব্য়াটে আসছে না। এত শুকনো পিচ বানানোর যুক্তি পাচ্ছেন না অনেকে। তবে অনেকে ভারতের ব্য়াটিংকেও দুষছেন। অজি বোলিংকেও ফুল মার্কস দিচ্ছেন ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা। আরও পড়ুন-মোদী স্টেডিয়ামে বিশ্বকাপের ফাইনালের মঞ্চে মাঠে ঢুকে পড়লেন প্য়ালেস্টাইন সমর্থক, বিরাটকে জড়িয়ে ধরে প্রতিবাদ! 

দেখুন পিচ নিয়ে সাংবাদিকদের সমালোচনা

দেখুন এক্স

ভারতের ইনিংসের মাত্র ২৫-৩০ ওভার পর থেকে পিচ বেশ স্লো হয়ে পড়ে। প্রথমে ব্যাট করে ভারত করল ২৪০ রান। এবার যদি অস্ট্রেলিয়া এই রান তাড়া করে জিতে যায় তাহলে পিচের জন্য প্রবল সমালোচিত হতে চলেছেন বোর্ড সচিব তথা গুজরাট ক্রিকেট সংস্থার অলিখিত প্রধান জয় শাহ। তবে ভারত জিতে গেলে পিচ নিয়ে আর তেমন আলোচনা হবে না। যতই হোক, জিতলে আর খারাপ কথা কে মনে করতে চায়।