Ronaldinho Fake Passport Row: আবেদন খারিজ, আপাতত গৃহবন্দীই থাকতে হচ্ছে রোলানদিনহোকে
Ronaldinho

ভুয়ো পাসপোর্ট মামলায় প্যারাগুয়েতে (Paraguay) গৃহবন্দীই থাকতে হচ্ছে প্রাক্তন ফুটবলার রোলানদিনহোকে (Ronaldinho)। গৃহবন্দী থাকার নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ করে আদালতে আবেদন করেছিলেন তিনি। সেই আবেদন খারিজ হয়ে গেছে। তাই প্রাক্তন বার্সেলোনা তারকা ও তাঁর ভাইকে প্যারাগুয়েতেই থাকতে হবে।

ভুয়ো পাসপোর্ট নিয়ে প্যারাগুয়েতে ঢোকায় গ্রেপ্তার হন এই ব্রাজিলিয়ান তারকা।রোনালদিনহোর সঙ্গেই গ্রেপ্তার হন তাঁর ভাইও। তাঁর হোটেল থেকে জাল পাসপোর্ট-সহ একাধিক ভুয়ো কাগজপত্র উদ্ধার হয়েছে। মাস খানেক তাঁরা জেলেও ছিলেন। এপ্রিলে তাঁদের জামিনের আবেদন সাড়া দেয় আদালত। প্যারাগুয়ের রাজধানী আসুনসিয়নের পালমারোগা নামের একটি হোটেলে তাঁদের রাখা হয়। স্থানীয় সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, রোনালদিনহোর আবেদন খারিজ হয়ে গেছে মানে তাঁকে প্রিভেনটিভ ডিটেনশানে যেতে হবে সর্বোচ্চ ৬ মাসের জন্য। কারণ মামলা এখনও চলছে। আরও পড়ুন: Chetan Chauhan COVID-19 Positive: করোনায় আক্রান্ত প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার ও উত্তরপ্রদেশের মন্ত্রী চেতন চৌহান

ব্রাজিলের ২০০২ বিশ্বকাপ জয়ী দলের সদস্য রোনানদিনহো জানিয়েছিলেন, ব্যবসায়িক কারণেই আসুনসিয়ন যান তিনি। প্রাক্তন ফুটবলার এবং তাঁর ভাইয়ের দাবি, তাঁদের প্রয়োজনীয় নথিপত্র “উপহার” হিসেবে তাঁদের দেন উইলমনদেস সুসা লিরিয়া নামক এক ব্রাজিলীয় ব্যবসায়ী, যিনিও আপাতত জেলে।