Legendary Footballer Chuni Goswami: জন্মদিনে কিংবদন্তি ফুটবলার চুনী গোস্বামীর নামে ডাকটিকিট প্রকাশ করল ভারতীয় পোস্ট
কিংবদন্তি ফুটবলার চুনী গোস্বামী (Photo: PTI)

কলকাতা, ১৬ জানুয়ারি: ৮২তম জন্মদিনে কিংবদন্তি ফুটবলার চুনী গোস্বামীর (Footballer Chuni Goswami) মুকুটে যোগ হল নতুন পালক। তাঁর নামে ডাকটিকিট (Commemorative Stamp) প্রকাশ করল ভারতীয় পোস্ট (Indian Post)। ১৯৬২ সালের এশিয়ান গেমসে ভারতীয় ফুটবল দল স্বর্ণপদক জেতে। সেই দলের নেতৃত্ব দিয়েছিলেন চুনী গোস্বামী। বুধবার জন্মদিনে যোধপুর পার্কের বাড়িয়ে এসে কিংবদন্তির হাতে তাঁরই নামাঙ্কিত ডাকটিকিট তুলে দিলেন ডাকবিভাগের আধিকারিকরা। স্বভাবতই গোটা ঘটনায় আপ্লুত বর্ষীয়ান ক্রীড়াবিদ। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সুব্রত ভট্টাচার্য সহ আরও অনেকে।

১৯৯৮ সালে গোষ্ঠ পাল এবং ২০১৮ সালে তালিমেরেন আও-র নামে ডাকটিকিট প্রকাশ করে ভারতীয় পোস্ট। তৃতীয় কোনও ভারতীয় ফুটবলার হিসেবে এবার এই সম্মান পেলেন চুনী গোস্বামী। সম্মানিত হওয়ার পর তিনি বলেন, "এটি সম্পূর্ণ অপ্রত্যাশিত ছিল। আমাকে যে সম্মান দেখানো হয়েছে তাতে আমি সত্যিই বিনীত হয়েছি। এটি আমাকে আরও দীর্ঘজীবনের জন্য আরও অনুপ্রাণিত করবে।" তিনি আরও যোগ করেছেন, "বেশ কয়েক বছর ধরে খেলার কারণে আমি অনেক পুরস্কার পেয়েছি। তবে জীবনের শেষপ্রান্তে এসে এই পুরস্কার উপরের দিকেই থাকবে।" আরও পড়ুন: MS Dhoni: নতুন বছরে বিসিসিআইয়ের চুক্তি থেকে বাদ পড়লেন মহেন্দ্র সিং ধোনি, তবে কি ইতি টানবেন?

বাংলার জার্সিতে ৪৬টি প্রথম শ্রেণী ম্যাচ পাশাপাশি ফুটবলার হিসেবে ৫০টি আন্তর্জাতিক ম্যাচে দেশের জার্সি গায়ে প্রতিনিধিত্ব করেছেন চুনী। ক্রীড়াবিদ হিসেবে এমন বর্ণময় জীবন দেশের খেলাধূলার জগতে বিরল। যে কারণে বরাবরই ব্যতিক্রম তিনি। স্বাভাবিকভাবেই দেশের তৃতীয় ক্রীড়াবিদ হিসেবে সুবিমল ওরফে চুনী গোস্বামীর মুকুটে যোগ হওয়া নয়া এই পালক বোধহয় প্রত্যাশিতই ছিল। অবশেষে ৮২তম জন্মদিনে এই সম্মান আলাদা মাত্রা যোগ করল ১৯৬২ এশিয়াডে সোনাজয়ী ভারতীয় দলের অধিনায়কের জীবনে। ফুটবল কেরিয়ারে আজীবন মোহনবাগানের হয়ে খেলা চুনীর বাংলার হয়ে রঞ্জি অভিষেক ১৯৬২-৬৩ মরশুমে। নেতৃত্ব প্রদান করে রঞ্জি ট্রফির ফাইনালে বাংলাকে পৌঁছে দেওয়ার নজিরও রয়েছে তাঁর ঝুলিতে। স্বীকৃতিস্বরূপ ১৯৬৩ অর্জুন পুরস্কার, ১৯৮৩ পদ্মশ্রী, ২০০৫ মোহনবাগান রত্ন পান চুনী গোস্বামী।