India-Bangladesh Day-Night Test: ইডেনে দিন-রাতের টেস্ট, কবে থেকে দেওয়া হবে মেম্বারশিপ টিকিট?
ইডেন গার্ডেন্স (Photo: IANS)

কলকতা, ১৬ নভেম্বর: ইডেনে ঐতিহাসিক দিন-রাতের টেস্টের জন্য মেম্বারশিপ টিকিট দেওয়ার জন্য নির্দেশিকা জারি করল সিএবি। নির্দেশিকা অনুযায়ী আগামী ১৮ এবং ১৯ নভেম্বর মেম্বারশিপ টিকিট দেওয়া হবে। গেট নম্বর ৫,৬,৭ এবং ৮ থেকে সকাল ১০টা থেকে ৫টা অবধি চলবে টিকিট দেওয়া। তবে এটি কিন্তু শুধুমাত্র মেম্বারশিপ টিকিট। সর্বসাধারণের জন্য নয়। ২২ নভেম্বর দেশে প্রথমবার দিন-রাতের টেস্ট ম্যাচ ( Day-Night Test) শুরু হবে ঐতিহাসিক ইডেন গার্ডেন্সে। মুখোমুখি হবে ভারত ও বাংলাদেশ (India vs Bangladesh)। শীতকালে (winter) সূর্যাস্তের পর ইডেন গার্ডেন্সে শিশির বড় ফ্যাক্টর ( dew factors)। সেকথা মাথায় রেখে বেলা ১টায় খেলা শুরু হবে।দিনের খেলা শেষ হবে রাত ৮টায়।

এই ম্যাচকে স্মরণীয় করে রাখার জন্য সর্বোতভাবে চেষ্টা করছেন বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলি। ২২-২৬ নভেম্বর এই ম্যাচ ঘিরে ইডেনে থাকছে একাধিক আয়োজন। ম্যাচের দিন ভারতীয় সেনার প্যারাট্রুপাররা আকাশ থেকে নেমে বল দেবেন আম্পায়ার ও দুই অধিনায়কের হাতে। একইসঙ্গে ভারত ও বাংলাদেশের জাতীয় সংগীত পরিবেশন করা হবে। ইডেনে গোলাপি টেস্টে টস হবে সোনার কয়েনে। টেস্টের পাঁচদিন শহরের বিভিন্ন জায়গা গোলাপি আলোয় আলোকিত করার পরিকল্পনাও করা হচ্ছে বলে খবর। টেস্টের প্রথম তিনদিনের অনলাইন টিকিট ইতিমধ্যে শেষ বলে খবর মিলেছে। বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি ইডেনের ঘণ্টা বাজিয়ে টেস্টের সূচনা করবেন। উপস্থিত থাকতে পারেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। এছাড়াও প্রথম বিরতির পর ভারতীয় ক্রিকেট দলের প্রাক্তন ক্রিকেটার ও অন্য খেলার কৃতীদের সম্মানিত করা হবে। আরও পড়ুন: EDEN GARDENS BUFFET: ইডেনে ভারত- বাংলাদেশ ক্রিকেট ম্যাচ দেখতে আসছেন শেখ হাসিনা, তাঁর সম্মানে ৫০ পদের এলাহি ভোজ, কী কী থাকছে জানেন?

ভারতে প্রথম গোলাপী বলে টেস্ট দেখার জন্য টিকিটের বিশাল চাহিদা তৈরি হয়েছে। আগেই জানানো হয়েছে, এই ম্যাচে টিকিটের সর্বনিম্ন দাম হবে ৫০ টাকা। এই ম্যাচের টিকিট যাতে দর্শকরা সংগ্রহে রাখতে পারেন তাই সেটি আকর্ষণীয় করা হচ্ছে। সিএবি জানিয়েছে, ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে দিন-রাতের টেস্টের প্রথম তিনদিনের জন্য ইতিমধ্যেই ৫০ হাজারেরও বেশি টিকিট বিক্রি হয়ে গেছে। ম্যাচের প্রতিদিনই টিকিটের চাহিদা বাড়ছে বলেই জানানো হয়েছে।