BCCI Annual Contract 2019-20: বিসিসিআই-র বার্ষিক চুক্তি থেকে কেন বাদ পড়লেন মহেন্দ্র সিং ধোনি?
মহেন্দ্র সিং ধোনি (Photo Credits: Facebook)

মুম্বই, ১৬ জানুয়ারি: বৃহস্পতিবার প্রকাশিত হওয়া ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের বার্ষিক কেন্দ্রীয় চুক্তি (BCCI Annual Contract 2019-20) তালিকায় নেই প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনির (M S Dhoni)। আগামী সেপ্টেম্বর পর্যন্ত চুক্তির তালিকা ঘোষণা করেছে BCCI। তবে সেখানে A থেকে C- কোনও গ্রেডেই নেই মহেন্দ্র সিং ধোনির নাম। প্রসঙ্গত, গত বছর চুক্তি তালিকায় সর্বোচ্চ A গ্রেডে ছিলেন ধোনি। বিশ্বকাপের সেমিফাইনালের পর আর কোনও ধরনের ক্রিকেটে দেখা যায়নি ধোনিকে। আজ BCCI-এর চুক্তির খবরের পর ধোনি-ভক্তদের মধ্যে শুরু হয়ে গিয়েছে জোর জল্পনা। তবে এটিও প্রকাশ্যে এসেছে যে ভারতের সেরা ফিনিশারের জন্য এখনও ভারতীয় দলের দরজা খোলা রয়েছে।

জানা যাচ্ছে, কেন্দ্রীয় চুক্তি তালিকা থেকে মহেন্দ্র সিং ধোনির বাদ পড়া আসন্ন ছিল এবং জাতীয় নির্বাচক কমিটি নাম চূড়ান্ত করার আগে তাঁকে যথাযথভাবে জানিয়েছিল। বিসিসিআই-র এক শীর্ষ কর্তা বৃহস্পতিবার পিটিআইকে জানিয়েছেন, প্রাক্তন অধিনায়ক যদি এই বছরের কোনও এক সময় টি-২০ ম্যাচ খেলেন তবে তাঁকে পুনরায় অন্তর্ভুক্ত করা যেতে পারে। আসলে দুবারের বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ককে তালিকা থেকে বাদ দেওয়া অপ্রত্যাশিত ছিল না। কারণ তিনি গত ৬ মাস ধরে কোনও আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলেননি। আরও পড়ুন: MS Dhoni: নতুন বছরে বিসিসিআইয়ের চুক্তি থেকে বাদ পড়লেন মহেন্দ্র সিং ধোনি, তবে কি ইতি টানবেন?

বিসিসিআই-র আরেক কর্তা বলেন, দেশের হয়ে খেলার সঙ্গে কেন্দ্রীয় চুক্তির কোনও সম্পর্ক নেই এবং যতক্ষণ না ধোনি অবসর নেওয়ার বিষয়ে ঘোষণা না করেন ততক্ষণ পর্যন্ত তিনি ভারতীয় দলে পারফর্ম করতে এবং যে কোনও দাবি জানাতে পারেন নির্দ্বিধায়। আসলে আপনি দেশের হয়ে খেলছেন কি না তার সঙ্গে এই চুক্তির কোনও যোগ নেই। নিয়মিত খেলা খেলোয়াড়দের একটি চুক্তি করা হয় এবং সত্য কথা বলতে গেলে, ২০১৯ বিশ্বকালের পরে ধোনি জাতীয় দলের হয়ে খেলেননি। তাই চুক্তির তালিকায় তাঁর নাম নেই। কেউ যদি এটিকে যাত্রা শেষ বা নির্বাচকদের দিক থেকে কিছু ইঙ্গিত হিসাবে দেখেন, তাহলে কিছু বলার নেই।"

তিনি বলেন, "ধোনি চাইলে এখনও পারফরম্যান্স করতে পারেন এবং জাতীয় দলে ফিরে আসতে পারেন। এর মধ্যে টি-২০ বিশ্বকাপে ভারতের হয়ে খেলা অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। কেন্দ্রীয় চুক্তির সঙ্গে ধোনির ভারতের ভবিষ্যতের কোনও সম্পর্ক নেই। অতীতেও কোনও চুক্তি ছাড়াই খেলোয়াড় ছিল এবং ভবিষ্যতেও তা দেখতে পাবেন।"