Karnataka Shocker: পর্ন দেখতে জোরাজুরি স্ত্রীয়ের, একাধিক পুরুষের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কের ভিডিও ফাঁস, বিবাহবিচ্ছেদের আবেদন স্বামীর
প্রতীকী ছবি (Photo Credits: Pixabay)

বেঙ্গালুরু, ৫ ফেব্রুয়ারি: বেঙ্গালুরুর (Bengaluru) এক মহিলা তাঁর স্বামীকে মনোরোগ বিশেষজ্ঞের কাছে যাওয়ার পরামর্শ দেন। কিন্তু কেন? তাঁর স্বামী স্ত্রীর একাধিক যৌন ভিডিও এবং অন্যান্য পুরুষদের সঙ্গে একাধিক সম্পর্কের বিষয়ে জানতে পেরে বিবাহবিচ্ছেদের আবেদন করেছিলেন। স্বামী, একজন প্রযুক্তিবিদ।তিনি উত্তরপ্রদেশের বাসিন্দা। তাঁর স্ত্রী পেশায় ডাক্তার। স্ত্রী তাঁর স্বামীকে পর্ন ভিডিও (Porn Video) দেখতে এবং তার সাথে সেই আচরণগুলি করার জন্য জোরাজুরি করতেন। এরপর স্বামী অন্য পুরুষদের সঙ্গে তাঁর স্ত্রীয়ের অতীতের যৌন সম্পর্কের কথা জানতে পারেন।

মহিলা, কলকাতা বাসিন্দা।তাদের একটি বিবাহ সাইটে দেখাশুনার পর ২০১৮০য় বিয়ে করেন এবং বেঙ্গালুরুতে সংসার করা শুরু করেন। বিয়ের আগে, মহিলাটি একজন পুরুষের সঙ্গে তার সম্পর্কের কথা স্বামীকে জানিয়েছিলেন। তাদেরমধ্যে যে আর কোনও সম্পর্ক নেই তাও জানিয়েছিলেন। যতক্ষণ না মহিলা তার স্বামীকে পর্ন ভিডিও দেখার জন্য এবং তার সাথে এই আচরণগুলি কার্যকর করার জন্য জোর করা শুরু করেনি পরিস্থিতি ততক্ষণ ঠিকঠাক ছিল। আরও পড়ুন, পোষা জোঁককে হাত থেকে রক্ত খাওয়াচ্ছেন যুবক! সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া সেই ভিডিও দেখেছেন?

স্ত্রীর জোরাজুরিতেই মেয়েটির স্বামী পর্ন ভিডিও দেখা শুরু করে। এরপর হঠাৎই একদিন নিজের বউকেই সেই ভিডিওতে দেখতে পান, অন্য পুরুষের সঙ্গে। তার স্ত্রী তাকে বলেছিলেন, যে ব্যক্তিটি তার প্রাক্তন প্রেমিক যিনি তাকে পুরানো ভিডিও দিয়ে ব্ল্যাকমেল করেন। স্বামী অসন্তুষ্ট হয়ে বিবাহবিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। এরপর জানুয়ারি মাসে আরেকটি ভিডিও সামনে আসে যেখানে তাঁর স্ত্রী অন্য আরেক ব্যক্তির সঙ্গে যৌন সঙ্গমে লিপ্ত ছিলেন।

এরপর স্ত্রী তার স্বামীকে বিয়ের আগে একাধিক সম্পর্ক থাকার কথা স্বীকার জানান। স্বামী একমুহূর্ত দেরি না করে ছেড়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন। তিনি যখন বিবাহবিচ্ছেদের চান, স্ত্রী তাতে রাজি হননি। কর্ণাটকের এক মনোরোগ বিশেষজ্ঞ সংস্থা এখনও তাদের সম্পর্ককে পুরনো জায়গায় ফিরিয়ে আনার প্রয়াস করে চলেছে।