বিরাট কোহলি-র গাড়ি পানীয় জলে ধোওয়া নিয়ে বিতর্ক- ভারত অধিনায়ককে ৫০০ টাকা জরিমানা পুরসভার
বিরাট কোহলির গাড়ি পানীয় জলে ধোওয়ার জেরে জরিমানা। (Photo Credits: PTI and Pixabay)

নয়া দিল্লি, ৭ জুন: ইংল্যান্ডে বিশ্বকাপ খেলতে ব্যস্ত বিরাট কোহলি (Virat Kohli) দেশে জড়ালেন বিতর্কে। ভারত অধিনায়ক যখন রবিবার অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ম্যাচের প্রস্তুতি নিচ্ছেন, তখন গুরুগ্রামের DLF Phase 1-এ তাঁর বাড়িতে গাড়ির ড্রাইভার যে কাজ করলেন তাতে কোহলি বিড়ম্বনায় পড়লেন। বিরাটের ড্রাইভার তাঁর দামী গাড়িটা ধুলেন পানীয় জলে। যে পানীয় জলের জন্য দিল্লির একটা অংশে হাহাকার আছে। আজ সকালে কোহলির ড্রাইভারের এই কীর্তির জন্য ভারত অধিনায়ককে জরিমানা করল স্থানীয় পুরসভা।

গুরুগ্রাম মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশনের পক্ষ থেকে কোহলিকে পানীয় জল দিয়ে গাড়ি ধোয়ার অপরাধে ৫০০ টাকা জরিমানা করা হল। কয়েকশো কোটি টাকার মালিক কোহলির কাছে ৫০০ টাকা জরিমানার শাস্তিটা প্রতীকী হয়ে থাকল। রাজধানী শহরে কোহলির প্রতিবেশীরা বলছেন, ভারত অধিনায়কের পছন্দের মোট ৬টি গাড়ি ধুতে গাড়ির ড্রাইভর ও তার সহকারীরা প্রায় হাজার লিটার পানীয় জলের ব্যবহার করেন। জলের কারণে যাতে গাড়ির চকচকে ভাব নষ্ট না হয়ে যায়, তাই পানীয় জল ব্যবহার করা হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। কোহলির ৬টি গাড়ির মধ্যে রয়েছে ভারত অধিনায়কের অত্যন্ত পছন্দের দুটি SUV-গাড়ি। কোহলির পাশাপাশি ওই অঞ্চলের আরও দশ জনকে ওই একই কারণে জরিমানা করেছে পুরসভা। এই অঞ্চলে বেশিরভাগ বাড়িই ধনী ব্যক্তিদের।

খবরে প্রকাশ, অভিযোগ পাওয়ার পর পুরসভার কর্তারা কোহলির ড্রাইভারদের পানীয় জলে গাড়ি ধুতে একেবারে হাতেনাতে ধরেন। এই খবর ভাইরাল হতেই কোহলিকে জরিমানা করার টাকার অঙ্ক নিয়ে হাসাহাসি শুরু হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। বেশ কয়েকজন নেটিজেন পানীয় জল নষ্টের জন্য কোহলির আরও বড় শাস্তি পাওনা ছিল বলে দাবি করেন।