Viral: একাধিক পুরুষের সঙ্গে অবৈধ শারীরিক সম্পর্ক, আঠা লাগিয়ে স্ত্রীর যোনি বন্ধ করল স্বামী
অবৈধ শারীরিক সম্পর্ক/ প্রতীকী ছবি (Photo Credits: Pexels)

যে কোনও সম্পর্কে প্রতারণা খুবই ক্ষতিকারক। সেই সম্পর্ক যদি স্বামী-স্ত্রীর হয় তাতে ভুল বোঝাবুঝি কী মাত্রায় পৌঁছে যায় তার বহু উদাহরণ পাওয়া গেছে। এর ফল কতটা হিংসাত্মক হতে পারে তা প্রায়শই দেখা যায়। আইনের কথা মাথায় না রেখে যা খুশি তাই করে ফেলেন অনেকেই। সেরকমই এক অদ্ভুত ঘটনা ঘটে দক্ষিণ কেনিয়ায়। স্ত্রীর অন্য সম্পর্কের কথা প্রকাশ্যে আসতেই আঠা (Superglue) লাগিয়ে যোনি (Vagina) বন্ধ করে দিল স্বামী।

ডেনিস মুমো, দক্ষিণ কেনিয়ার (Southern Kenya) বাসিন্দা। বয়স ৩৬। স্ত্রীয়ের চার জন পুরুষের সঙ্গে অবৈধ সম্পর্ক থাকার কথা জেনে যান তিনি। তিনি জানান, সোশ্যাল মিডিয়া মেসেজের থেকে স্ত্রীয়ের সম্পর্কগুলির কথা জানতে পেরেছেন ওই ব্যক্তি। ব্যবসার কাজের জন্য সে বেরিয়ে গেলেই তার বউ তাকে প্রতারণা করত বলে দাবি করেছেন। তাই পরের ব্যবসার কাজে বাইরে যাওয়ার আগে স্ত্রীর যোনি আঠা লাগিয়ে বন্ধ করে দেয় ক্ষুব্ধ স্বামী। আরও পড়ুন, চলন্ত বাইকে ফেসবুক লাইভ, নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পড়ে গিয়ে মৃত্যু যুবকের

মুমো পুলিশকে জানিয়েছেন, এটাই তাদের বৈবাহিক সম্পর্কটা বাঁচিয়ে রাখার অন্যতম উপায় ছিল। তবে এই ঘটনার ফলে মহিলার যোনিতে অসহ্য ব্যাথা হতে শুরু করে। তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয় এবং এই মুহূর্তে তিনি চিকিৎসাধীন। প্রতিবেশীরা মুমোর এই কাণ্ড দেখে রীতিমতো ভীত। স্টারের খবর অনুযায়ী, ওই ব্যক্তি স্ত্রীর নগ্ন ছবি, গোপন মেসেজ ইত্যদি দেখিয়েছে। কিন্তু আদালতে এই হিংস্র ঘটনা ঘটানোর জন্য ব্যক্তিকে পারিবারিক হিংস্রতা এবং স্ত্রীর যৌনাঙ্গ নষ্ট করার মামলা করা হয়েছে।

আদালতে মামলা দায়ের করার মাঝে, মুমোর আইনজীবী দাবি করেছে এই ঘটনা তার স্ত্রীয়ের দোষে ঘটেছে। স্ত্রীয়ের এই কাণ্ডের জন্যই সম্পর্কে ভুল বোঝাবুঝি তৈরি হয়। স্ত্রীর দোষ স্বীকারের দাবি জানিয়েছেন।