Bulandshahr: কাকা-ভাতিজার প্রাণ গেল জাদুর মুদ্রার জেরে, দেখুন ভিডিও
Magical Coin (Photo Credit: X)

বুলন্দশহর: বৃষ্টি দিয়ে তৈরি করা যায় জাদুর মুদ্রা (Magic Coin)। তাঁদের কাছে এরকম একটা মুদ্রা আছে, যা তাঁরা কোটি টাকায় বিদেশে বিক্রি করবেন। কর্মচারীর সামনে এসব অলৌকিক গল্প বলা কাকা-ভাতিজার প্রাণ গেল। পুলিশ সূত্রে খবর  জাদুর কয়েন পেতে কর্মচারী ও তার বন্ধু মিলে কাকা-ভাতিজাকে খুন করেছে। পুলিশ তাঁদের গ্রেফতার করেছে।

এসএসপি শ্লোক কুমার জানিয়েছেন, ৩১শে মার্চ সন্ধ্যায় গঙ্গানাহারের তীরে নগর কোতোয়ালি এলাকার বাসিন্দা সুধীর গর্গ ও রাজীব গর্গের রক্তাক্ত দেহ পাওয়া যায়। খুনের অভিযোগে পুলিশ ঋষভ ও তাঁর বন্ধু তনুকে গ্রেফতার করে। তদন্তে জানা গিয়েছে, রাজীব এবং সুধীর গর্গ তাঁদের পাবলিক সার্ভিস সেন্টারে বসে একটি অলৌকিক মুদ্রা নিয়ে কথা বলতেন।

দেখুন ভিডিও

তদন্তে জিজ্ঞাসাবাদে অভিযুক্ত ঋষভ জানায়, কাকা-ভাতিজা দুজনে নিজেদের মধ্যে কথা বলতেন ,যে তাঁদের কাছে একটা জাদুর মুদ্রা আছে। সারা বিশ্বে এই ধরনের ২৬টি মুদ্রা রয়েছে, এই মুদ্রার মূল্য হাজার কোটি টাকা। তিনি লোভে পড়ে তাঁর বন্ধু তনুকে সব খুলে বলেন। এরপর দুজনে মিলে রাজীব ও সুধীরকে হত্যার পরিকল্পনা করেন।

আরও পড়ুন: Traffic Rules: ট্রাফিক চালান এড়াতে অনবদ্য কৌশল অবলম্বন করলেন যুবক, দেখে চমকে যাবেন আপনিও (দেখুন ভিডিও)

গত ৩১ মার্চ সন্ধ্যায় ঋষভ রাজীবকে তাঁর স্কুটিতে করে গঙ্গা পাড়ে ঘুরতে নিয়ে যান। তাঁর বন্ধু তনু আগে থেকেই সেখানে ছুরি নিয়ে দাঁড়িয়ে ছিলেন। রাজীব স্কুটার পার্ক করার সঙ্গে সঙ্গে তনু ছুরি দিয়ে রাজীবকে আক্রমণ করেন। এর কিছুক্ষণ পর ঋষভ চায়ের দোকানের মালিকের ফোন থেকে সুধীরকে গণসেবা কেন্দ্রে আসতে বলেন। সুধীর পৌঁছলে তাঁকে বলা হয় রাজীবের দুর্ঘটনা ঘটেছে। সুধীর সেখানে যেতে চাইলে তাঁকে স্কুটিতে করে সেখানে পৌঁছে দিতে চায়। এরপর স্কুটারে বসে থাকা অবস্থায় সুধীরকে ছুরি দিয়ে আক্রমণ করে। দুজনকে হত্যার পর স্কুটারটি খালে ফেলে দেয়।