বিল পাস হতে না হতেই মাঝ রাস্তায় স্ত্রীকে তিন তালাক স্বামীর(দেখুন ভিডিও)
রাস্তায় চলছে তিন তালাক(Photo Credit: ANI)

মোরাদাবাদ, ১ আগস্ট: তিন তালাক বিল রাজ্য সভায় পাস হতে না হতেই বিপত্তি। মাঝ রাস্তায় দাঁড়িয়ে স্ত্রীকে তিন তালাক দিলেন এক যুবক। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের মোরাদাবাদ এলাকায়। স্বামী স্ত্রীর মধ্যা রীতিমতো কথা কাটাকাটি চলছিল, দুজনেক নিরস্ত করতে আপ্রাণ চেষ্টা চালাচ্ছিলেন গৃহবধূর ভাই। আচমকাই রেগে গিয়ে স্ত্রীকে তিন তালাক দিয়ে বসেন ওই যুবক। তাতে গৃহবধূর ভাই বিরক্ত হয়ে সাফ জানান, থানায় গিয়ে পুলিশের সামনে যা বলার বলুক, রাস্তায় যেন তামাশা না দেখায়। এতেই রেগে গিয়ে শ্যালককে মারধর করেন ওই যুবক। আরও পড়ুন-এলাকার নাম ‘পাকিস্তান ওয়ালি গলি’, তাই ছেলেমেয়েরা চাকরি পাচ্ছেন না

বলা বাহুল্য, ততক্ষণে আশপাশে ভিড় জমেছে। প্রত্যক্ষদর্শীরা থানায় খবর দিলে ঘটনাস্থলে আসে পুলিশ। দুই তরফকেই হাতাহাতি থেকে সরিয়ে দেয়। জানা গিয়েছে ওই দম্পতির মধ্যে বিবাহ বিচ্ছেদের মামলা চলছে। তাঁদের এক সন্তানও রয়েছে। আগামী ১১ আগস্ট মামলার শুনানি, তবে তার আগেই স্ত্রীকে তিন তালাক দিলেন ওই যুবক। এই প্রসঙ্গে মোরাদাবাদের ডেপুটি পুলিশ সুপার রাজেশ কুমার জানিয়েছেন, ঘটনাটি ঠিক কি ঘটেছে তা তাঁরা জানতে পেরেছেন। ঘটনাদৃশ্যের ভিডিও ফুটেজ তাঁদের কাছে আছে। দুই পরিবারের তরফেই থানায় অভিযোগ জমা পড়েছে। এখন শুধু কোনওরকম পদক্ষেপ নেওয়ার আগে একবার প্রত্যক্ষদর্শীদের বয়ান শুনে নেওয়া জরুরি।

ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে, ঘটনাটি উত্তরপ্রদেশের মোরাদাবাদের। বোরখা পরে রয়েছেন এক যুবতী। তাঁর স্বামী রাস্তার মধ্যেই বচসায় জড়িয়ে পড়েন। কথার মাঝেই স্ত্রীকে তিন তালাক দেন তিনি। তারপরেই যুবতীর সঙ্গে থাকা তাঁর ভাইয়ের সঙ্গে হাতাহাতি হয় তাঁর। রীতিমতো লাঠি নিয়ে একে অন্যের উপর ঝাঁপিয়ে পড়েন তাঁরা। এই মারামারির মধ্যে দু-একটা দোকানেরও ক্ষতি হয়।