#SafetyFirst! গরমের জ্বালায় নগ্ন হয়েই স্কুটার চালালেন এই ব্যক্তি, মাথা বাঁচাতে রইল হেলমেট
এই সেই ব্যক্তি(Photo Credit: Polizei Brandenburg)

চলতি বছরটা গরমের কারণে একেবারে হিট। শুধু ভারতীয় উপমহাদেশেই নয়, গোটা বিশ্বজুড়ে তাপমাত্রা বেড়েছে হু হু করে। আর ভারত এসবের থেকে এক কাঠি উপর দিয়ে চলাফেরা করছে। এখানকার খরার জেরে দক্ষিণের রাজ্যগুলির অবস্থা ভয়ঙ্কর। মাটির নিচে জলস্তর নামতে থাকায় পানীয় জল পাওয়া যাচ্ছে না। নদী শুকিয়ে গিয়েছে, খাল বিল ফুটিফাটা, মাঠে কোনও সব্জি নেই। ঘটি বাটি বিক্রি করে জল কিনছেন চেন্নাইয়ের বাসিন্দারা। এত গরমেও বাহ্যক্ষান লুপ্ত হননি কেউ। কিন্তু এই জার্মান ভদ্রলোক কী করেছেন এবার দেখুন। আরও পড়ুন-

প্রচন্ড গরমে মানুষের অবস্থা নাজেহাল। রোদের প্রখর তেজ থেকে বাঁচতে সাধারণ মানুষ যখন পাতলা কাপড়ে নিজেদের ঢেকে রাখার চেষ্টায় ব্যস্ত, তখন জার্মানির এক ব্যক্তির কাণ্ড দেখে হেসে লুটোপুটি খাচ্ছে নেটদুনিয়া। আমাদের দেশে যেমন গরম পড়েছে, তেমন পশ্চিম ইউরোপের বিভিন্ন দেশে সাহারা মরুভূমি থেকে আসা গরম বাতাসের জেরে তাপমাত্রা বেড়ে গিয়েছে অনেকটাই। এই তাপমাত্রায় নাজেহাল হয়ে এক ব্যক্তি রাস্তা দিয়ে যাচ্ছেন সম্পূর্ণ নগ্ন হয়ে।

নগ্ন হয়ে রাস্তা দিয়ে স্কুটার চালিয়ে যাওয়ার সময় ওই ব্যক্তির পথ আটকায় পুলিশ। এবং তাঁকে জিজ্ঞাসা করে কেন সে এ ভাবে নগ্ন হয়ে রাস্তা চলাফেরা করছে? এর উত্তরে পুলিশকে ওই ব্যক্তি জানান, প্রচন্ড গরমে জামা কাপড় পরে থাকতে পারছেন না তিনি। কিন্তু গায়ে জামা না থাকলেও মাথায় হেলমেট পরতে ভোলেলনি ওই ব্যক্তি। গরমে জামা না পরলেও পথ নিরাপত্তার ব্যাপারে কোনও রকম ফাঁক রাখতে রাজি নন ওই ব্যক্তি।এই ঘটনার ছবিই নিজেদের টুইটার হ্যান্ডল থেকে পোস্ট করেছে জার্মান পুলিশ। তার পরই ভাইরাল হয়েছে পোস্টটি। প্রচুর মানুষ ওই জার্মান ব্যক্তির কর্মকাণ্ড নিয়ে আলোচনায় মেতেছেন। কিন্তু শরীরে পোশাক না থাকলেও হেলমেট পরে বাইক চালানোর নীতিতে অটল থেকে নেটিজেনদের প্রশংসাও কুড়িয়েছিলেন তিনি। মজার কথা হল ঠাঁটাপোড়া গরমে সম্পূর্ণ নগ্ন হয়ে স্কুটার চালিয়ে যাওয়ার জন্য দম থাকার দরকার ওই ভদ্রলোকের যে সেটি আছে তা ভালমতোই বোঝা যাচ্ছে।