Fact Check: ভারতের অর্থনীতিতে করোনার প্রভাব নিয়ে অনুপ্রেরণামূলক বার্তা দিয়েছেন রতন টাটা, সত্যিই কি তাই?

মুম্বই, ১১ এপ্রিল: করোনাভাইরাস (COVID-19) মহামারী বিশ্ব অর্থনীতিতে (Economy) বড় প্রভাব ফেলবে বলে বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন। প্রভাব পড়ে ভারতের অর্থনীতিতেও। এটা বেশ স্পষ্টই যে অপ্রত্যাশিত ঘটনার কারণে করোনা মহামারী আর্থিক সঙ্কট আনবে। তবে এই ধরনের মহামারী ও সঙ্কের সময় কিছু লোক সোশাল মিডিয়ায় ভুয়ো বার্তা ছড়িয়ে দিচ্ছেন, আর সেই সব বার্তা যাচাই না করে শেয়ার হচ্ছে একের পর এক। যা মানুষের মধ্যে বিড়ম্বনা এবং বিভ্রান্তির কারণ হতে পারে।

সম্প্রতি ফেসবুকে একটি পোস্ট ভাইরাল হয়েছে। ওই পোস্টে দাবি করা হয়, ভারতের অর্থনৈতিক অবস্থা নিয়ে একটি বার্তা নাকি শিল্পপতি রতন টাটা (Ratan Tata) লিখছেন। বার্তায় বলা হয়েছে, রতন টাটা বলেছেন যে করোনাভাইরাস মহামারী (Coronavirus pandemic) ভারতের অর্থনীতিতে বিপর্যয় আনতে চলেছে। পোস্টে দাবি করা হয়েছে যে রতন টাটা বিশ্বাস করেন যে মহামারী কাটলে ভারতীয় অর্থনীতি মন্দায় ডুবে গেলেও আবারও চাঙ্গা হবে। বেশ কয়েকটি অনুপ্রেরণামূলক উদাহরণও দেওয়া হয়েছে বার্তায়। জাপান, ইজরায়েল, ১৯৮৩ সালে ভারতের ক্রিকেট বিশ্বকাপ জয় সহ কয়েকটি উদাহরণ দেওয়া হয়েছে। পোস্টে বলা হয়েছে, রতন টাটা বলেছেন আমরা করোনাকে হারাব এবং ভারতের অর্থনীতি দুর্দান্তভাবে ফিরে আসবে। আরও পড়ুন: Fact Check: লকডাউনে মানুষ ঘরবন্দী, ওড়িশার সমুদ্র সৈকতে ঘুরে বেড়াচ্ছে হরিণ? জানুন আসল সত্যি

যদিও অনুসন্ধান করে দেখা যায় বার্তাটি আসলেই রতন টাটা লেখেননি। আর সেকথা নিজেই জানিয়েছেন শিল্পপতি। আজ সকালে তিনি একটি টুইট করেন। ভুয়ো বার্তার ছবিসহ টুইট টাটা লেখেন, "এই পোস্ট লেখা কথাগুলি আমি বলিনি, আমি লিখিওনি। আমি আপনাদের হোয়াটসঅ্যাপ এবং সোশাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মগুলিতে প্রচারিত বার্তা যাচাই করার জন্য অনুরোধ করছি। যদি আমার কিছু বলার থাকে তবে আমি এটি আমার অফিসিয়াল চ্যানেলগুলিতে বলব। আশা করি আপনারা নিরাপদে আছেন এবং যত্ন নেবেন।"