Strange Incident : বিহারে ৪ হাত,পা, ২টি হৃদয় নিয়ে জন্ম নিল শিশু, ভাইরাল ছবি

ছাপড়া : সোমবার অন্যরকম এক শিশুর জন্ম হয় বিহারের একটি বেসরকারি নারসিংহোমে। নবজাতক শিশু কন্যাটি চারটি হাত, চারটি পা এবং চারটি কান নিয়ে জন্ম নেয়। এমন শিশুকে (Child) দেখে অবাক হন হাসপাতালের কর্মীরাও। তবে জন্মের মাত্র ২০ মিনিটের মধ্যে শিশুটি মারা যায়।

নার্সিং হোমের ডিরেক্টর ডাঃ অনিল কুমার জানান, ডাক্তারি পরিভাষায় এই ধরনের শিশুদেরকে বলা হয় সংযুক্ত যমজ। এক্ষেত্রে  শিশুরা জন্মের পর থেকেই একে অপরের সাথে সংযুক্ত থাকে। ভারত সহ বিশ্বে এমন অনেক উদাহরণ রয়েছে, যেখানে এই ধরনের সংযুক্ত শিশুদের অপারেশনের পর বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের দিয়ে তাদের আলাদা করা হয়েছে। তবে এই মেয়েটির ৪টি হাত, ৪টি পা, ৪টি কান, দুটি হৃৎপিণ্ড, দুটি মেরুদণ্ড এবং একটি মাত্র মাথা ছিল। এটা খুব কম মানুষের মধ্যে দেখা যায়।

এটি তখনই ঘটে যখন একটি মহিলার জরায়ুতে একটি ডিম থেকে দুটি বাচ্চা তৈরি হয়। এই প্রক্রিয়ায় সময়মতো দুজনেই আলাদা হয়ে গেলে যমজ সন্তানের জন্ম হয়। তবে কোনো কারণে আলাদা না হলে যমজ সন্তানের জন্ম হয় না। এরকম ঘটনা ঘটে থাকে। এক্ষেত্রে বাচ্চা জন্মের সময় গর্ভবতী মহিলাকে অনেক সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়। অপারেশনের মাধ্যমে মেয়েটির জন্ম হলেও ২০ মিনিটের মধ্যে সে মারা যায়।

হাসপাতালে উপস্থিত কর্মী ও রোগীরা এই খবর পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই বিষয়টি মানুষের মধ্যে আলোচনার বিষয় হয়ে ওঠে। হাসপাতালে শিশুকন্যাকে দেখতে ভিড় জমেছে। বাচ্চাটিকে জন্ম দিয়েছেন প্রিয়া দেবী, তিনি রিভিলগঞ্জের বাসিন্দা। এটি ছিল মহিলার প্রথম সন্তান। সিজারিয়ান অপারেশনের মাধ্যমে মেয়েটির জন্ম হয়। বর্তমানে প্রিয়া চিকিৎসকদের তত্ত্বাবধানে রয়েছেন।

দেখুন টুইট