Airline Staff Harassed by Residents: 'করোনা আক্রান্ত নই', প্রতিবেশীদের গুজবে হেনস্থার শিকার বিমানসংস্থার মহিলাকর্মী
হেনস্থার শিকার বিমানসংস্থার মহিলাকর্মী (Photo Credits: ANI)

কলকাতা, ২৪ মার্চ: ভারতে করোনাভাইরাসে (Coronavirus) আতঙ্কিত দেশ। লাফিয়ে বাড়ছে মৃতের সংখ্যা। এরই মাঝে উঠে আসছে হেনস্থা, অপমানের মত অমানবিক ঘটনা। মঙ্গলবার এক বিমানসংস্থার (Airline) মহিলাকর্মী (Staff) সমাজের জন্য যে কষ্ট ও নির্যাতনের মুখোমুখি হয়েছেন তার বর্ণনা দিয়ে একটি ভিডিও প্রকাশ করেন। ANI -দ্বারা প্রকাশিত একটি ভিডিওতে দেখা যায়, মহিলার আবাসনের বাসিন্দারা তাঁকে এবং তাঁর মাকে কোভিড -১৯ রোগ ছড়ানোর অভিযোগে দায়ী করেন। ২ মিনিট ২৩ সেকেন্ডের এই ভাইরাল ভিডিওতে মহিলা প্রত্যেককে গুজব না ছড়ানোর এবং সাধারণ মানুষকে করোনা ভাইরাস সম্পর্কে সচেতন করার জন্য অনুরোধ করেন।

তিনি বলেন, "আমি সেবামূলক কাজে নিযুক্ত। আমাদের মতো অনেকেই অনেক সমস্যার মুখোমুখি হয়েছি। আমি এমন জায়গায় বাস করছি যেখানে চারিদিক অশিক্ষায় ভরে গেছে। এমনকি স্থানীয় পুলিশরাও এর বাইরে নয়। মহিলা আরও বলেন, একটি নামী সংস্থার অংশ হওয়ার কারণে, তার সংস্থা সমস্ত কর্মীদের সুরক্ষা COVID-19 হওয়ার জন্য সম্পূর্ণ সতর্কতা অবলম্বন করেছে। আমি আক্রান্ত হলে আমার সংস্থা আমায় দিয়ে কাজ করতো না। এত কিছুর পরেও আমার সমাজের লোকেরা গুজব ছড়াচ্ছে যে আমি করোনভাইরাসে ভুগছি। আমি করোনায় ভুগছি না, দোয়া করে এরকম ভুয়ো খবর ছড়াবেন না।"

আরও পড়ুন, করোনাভাইরাসের গ্রাসে মহারাষ্ট্র, আক্রান্তের সংখ্যা ছুঁল ১০১

এই মহিলা এবং তার মা গুজবের কারণে তিনি মুদি দোকানে পর্যন্ত করতে পারছেন না। শুধু তারাই নয়, তাঁর দুই সহকর্মীও একই রকম হয়রানির শিকার হয়েছেন। ভারতে মোট করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৮৮৬ ছুঁয়েছে। এখন পর্যন্ত দেশটিতে নয়জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। ভাইরাসের বিস্তার নিয়ন্ত্রণে রাখতে, সারা দেশে ৩২ টি রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলিতে একটি সম্পূর্ণ লকডাউন করে দেওয়া হয়েছে। শুধুমাত্র উত্তরপ্রদেশ, মধ্য প্রদেশ এবং ওড়িশার কয়েকটি নির্দিষ্ট স্থানকে ছাড় দেওয়া হয়েছে।