ইংল্যান্ডের রানিকে ‘ব্যঙ্গ’ করলেন ইলন মাস্ক! ব্যাপারটা কি?
এই সেই টুইট(Photo Credit: Twitter)

লন্ডন, ৫ আগস্ট: টিঙ্কি-উইঙ্কি, ডিপসি, লা লা –র সঙ্গে তুলনায় একই সারিতে বসলেন ইংল্যান্ডের রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ। রানিকে এমন কার্টুন ক্যারেক্টারের সঙ্গে মিলিয়ে মজা করার সাহস দেখালেন স্পেসএক্স-এর প্রতিষ্ঠাতা ও টেসলার সিইও ইলন মাস্ক। এককথায় রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথকে নিয়ে মশকরা করলেন তিনি। পরপর দুটি টুইটে টেসলা সিইও যা করলেন তা অনেকটা এই রকম__টেলিটাবিজের চার চরিত্র টিঙ্কি-উইঙ্কি, ডিপসি, লা লা এবং পো নিজেদের ট্রেডমার্ক সাজে দাঁড়িয়ে রয়েছে টেলিটাবিল্যান্ডে। চারজনের পোশাকের রং লাল, হলুদ, সবুজ ও বেগুনী। ওপরে লেখা হয়েছে ‘টেলিটাব’। সঙ্গে পোস্ট করা হয়েছে একটি মৌমাছির ছবি, একসঙ্গে একে টেলিটাবি বলা যেতে পারে। আরও পড়ুন-বিশ্বে এই প্রথম, সাত বছরের খুদের মাড়িতে ৫২৬টি দাঁত!

রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথকে যে টুইটের মাধ্যমে ব্যঙ্গ করলেন ইলন মাস্ক তা একপ্রকার নিশ্চিত হয়ে গেল পরের পোস্টে। সেখানে টেলিটাবিজের চরিত্রদের পোশাকের মতো একই রঙের পোশাক পরা রানির চারটি ছবি। চারটি ছবিকে এক ফ্রেমে এনে টেলিটাবিল্যান্ডে দাঁড় করানো হয়েছে। পোস্টে লেখা হয়েছে ‘কুইন’, সঙ্গে একটি মৌমাছির ছবি। বলা বাহুল্য, স্পেসএক্স, মহাকাশ গবেষণা ও ব্যবসায় প্রথম সারির নাম। মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসার সঙ্গে ২০০৬ সাল থেকে কাজ করছে স্পেসএক্স। গাড়ি প্রস্তুতকার সংস্থা টেসলাও সেই একই ব্যক্তির, নাম যখন তাঁর ইলন মাস্ক। এতবড় একজন নামী মানুষ যখন কমিক চরিত্রের সঙ্গে রানিকে মেলান তখন তো একটা জিনিস মাথায় রাখতেই হবে, কুছ তো বাত হ্যয় ভাই।

উল্লেখ্য, ইলন মাস্কের টুইটার হ্যান্ডলে এমন মজার বা ব্যাঙ্গের পোস্ট আগেও দেখা গিয়েছে। তবে রানিকে নিয়ে এ হেন ব্যঙ্গ আগে কখনও করতে দেখা যায়নি তাঁকে। এ বিষয়ে এখনও পর্যন্ত কোনও মন্তব্য করেনি বাকিংহাম প্যালেস। রানিও মুখ খোলেননি, বিষয়টি নিয়ে নেটিজেনরা দুভাগ হয়ে গিয়েছে বলে শোনা যাচ্ছে। কেউ কেউ এই টুইটকে নিখাদ মশকরা হিসেবে দেখছেন, তবে বেশিরভাগেরই দাবি, মশকরার আড়ালে রানির ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলে দিয়েছেন টেসলার সিইও।