Tick Borne Virus: চিনে দ্রুত ছড়াচ্ছে টিক বাইট ভাইরাস; আক্রান্ত কমপক্ষে ৬০ ও মৃত্যু হয়েছে ৭ জনের, জানুন বিস্তারিত
Image used for representational purpose only Photo Credits: Twitter/ Olivier Delfour

বেইজিং, ৭ অগস্ট: করোনা পর এবার নতুন কাঁটা টিক বাইট (Tick Borne)। টিক বাইট হল (পোকার কামড় থেকে) ভাইরাস। ভাইরাসের জেরে এখনও পর্যন্ত আক্রান্ত কমপক্ষে ৬০ জন ও ৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এই ভাইরাসে আক্রান্তদের মধ্যে দু'ধরনের উপসর্গ দেখা দিচ্ছে। প্রবল জ্বর,সঙ্গে থ্রমবকটোনিয়া সিনড্রোম থাকছে। নতুন ভাইরাসের সংক্রমণে উদ্বিগ্ন চিনের স্বাস্থ্য দফতর।

সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, পূর্ব চিনের জিয়াংশু প্রদেশ ও আনহুই প্রদেশে এই ভাইরাসের প্রকোপ দেখা দিয়েছে। এইবছরের শুরুতেই জিয়াংশু প্রদেশ থেকে এই ভাইরাসের খবর মিলছিল বলে জানিয়েছে চিনা সংবাদমাধ্যমগুলি। পরে তা আনহুই প্রদেশে ছড়িয়ে পড়ে। সংক্রমিত হন ২৩ জন। চিনের ভাইরোলজিস্টরা মনে করছেন এশিয়ার হেমাফিসালিস লম্বিকোরনিস হল এর প্রাথমিক ভেক্টর বা ক্যারিয়ার। আরও পড়ুন, জলবায়ূ পরিবর্তনের জের, কানাডার শেষ সুবিশাল হিমশৈলও ভাঙল

২০১১ সালের একটি সমীক্ষা বলেছে, আক্রান্তদের নানা ধরনের উপসর্গ হতে পারে। যেমন-জ্বর, মাথা যন্ত্রণা, বমি বা বমিবমি ভাব, শরীরে অসহ্য যন্ত্রণা ইত্যাদি। সেরে উঠতে সময় লাগে সাত থেকে ১৩ দিন। সংক্রমিত হওয়ার সম্ভাবনা কাদের রয়েছে? যেহেতু পশুদের মাধ্যমে এই ভাইরাস ছড়ায় তাই কৃষক, শিকারি ও পশুপালকদের আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা সবচেয়ে বেশি। এই ভাইরাসের সংক্রমণ হওয়ার কাল মার্চ থেকে নভেম্বর হতে পারে। এই ভাইরাসের প্রতিষেধক এখনও নেই। তাই বাইরে বা মাঠেঘাটে, জঙ্গলে গেলে পা ঢাকা পোশাক পরার পরামর্শ দিয়েছেন চিকিৎসকেরা। এই ভাইরাসের যে শুধু মৃত্যু-হার বেশি তা নয়, এর সংক্রমণও ঘটে দ্রুত।