Durga Puja 2019: শ্যামবাজার পল্লী সংঘের মণ্ডপ এবার আস্ত ট্রাম! আধুনিক যাপনে কীভাবে এঁটে উঠতে পারবে কলকাতার হারিয়ে যেতে বসা ঐতিহ্য;  বলবে থিম
শ্যামবাজার পল্লী সংঘের থিম (Photo Credits: Shyambazar Pally Sangha)

কলকাতা, ১৯ সেপ্টেম্বর: ট্রাম..ঘটাং ঘটাং নস্টালজিয়া। একসময় কলকাতার (Kolkata) সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ এই পরিবহন ব্যবস্থা (Transport System) সময়ের সঙ্গে পাল্লা দিতে না পেরে এখন শুধুই পরিণত হয়েছে মহানগরের ঐতিহ্যে। কীভাবে সময়ের সঙ্গে খাপ খাইয়ে ফের ফিরিয়ে আনা যায় তিলোত্তমার হারিয়ে যেতে বসা এই ঐতিহ্য, সেই ভাবনা ভেবে ফেলেছেন শৌভিক মুখার্জি (Shouvik Mukherjee)। কলকাতার গণ যোগাযোগ ব্যবস্থা নিয়ে চর্চারত শৌভিকের সেই ভাবনায় এ বছর সেজে উঠেছে উত্তর কলকাতার (Uttar Kolkata) শ্যামবাজার পল্লী সংঘের মণ্ডপ (Shyambazar Pally Sangha)। শ্যামবাজার পল্লী সংঘের মণ্ডপ এবার আস্ত ট্রাম (Tram)! তাঁদের থিম (Theme)'চল রাস্তায় সাজি ট্রাম লাইন (Chol Rastay Saji Tramline)।'

মণ্ডপের রূপকার শৌভিক লেটেস্টলি (Latestly) বাংলাকে জানান, ট্রামের আদলে তৈরি মণ্ডপের ভিতর দিয়ে প্রবেশ করলে পৌঁছে যাওয়া যাবে দুর্গতিনাশিনীর কাছে। ট্রামের টিকিট ঘরের (Ticket Counter) আদলে তৈরি মণ্ডপের এক অংশে বিরাজিতা হবেন দেবী। মায়ের প্রতিমা এখানে সাবেকি ধরণের। মণ্ডপ তৈরির উপকরণ থার্মোকল, টিন প্রভৃতি। শৌভিকের তত্ত্বাবধানে শ্যামবাজারের মণ্ডপশিল্পীরা দিন রাত এক করে লেগে রয়েছেন প্রস্তুতি কর্মে। বাজেট (Budget) ৭ লক্ষ টাকা। আরও পড়ুন- Durga Puja 2019: পুজো আসছে, রূপান্তরকামী ভারত সুন্দরী অ্যানি এবার উমার ভূমিকায় অবতীর্ণ

শৌভিকের ভাবনায় এই প্রথম কলকাতার বুকে এশিয়া-অস্ট্রেলিয়ার (Asia-Australia) মেলবন্ধন।থিমকে মাথায় রেখেই ট্রাম নিয়ে তৈরি হচ্ছে থিম সং (Theme Song)! গাইবে পথশিশুরা। সঙ্গে গলা মেলাবেন অস্ট্রেলিয়ান ট্রাম কনডাক্টর (Australian Tram Conductor) রবার্তো (Robarto)। সুর দিয়েছেন বিজয় শীল (Bijoy Sil)। কথা লিখেছেন প্রীতম দে (Pritam Dey)। গান তৈরির সমস্ত খরচ বহন করবে আর্গোভব হিউম্যানিটি ডেভেলপমেন্ট (Argovobo Humanity Development) নামে কলকাতার এক স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা। মহালয়ার (Mahalaya) দিন রয়েছে গানের রেকর্ডিং।তাছাড়া এই থিম নিয়ে তথ্যচিত্রও (Documentary) তৈরি করা হচ্ছে। যেগুলি দেখানো হবে মণ্ডপে আগত দর্শনার্থীদের (Visitors)।