Unnao:  উন্নাও নির্যাতিতাকে পুড়িয়ে মারার চেষ্টায় ধৃত ৫ জনের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির আশ্বাস যোগী আদিত্যনাথের
যোগী আদিত্যনাথ(Photo Credit: IANS)

লখনউ, ৫ ডিসেম্বর: নির্যাতিতাকে পুড়িয়ে মারার (Rape Survivor) চেষ্টার ঘটনায় অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ধৃতদের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি হবে আশ্বাস দিলেন, মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ (CM Yogi Adityanath)। এদিন আদালতে ম্যাজিস্ট্রেটের সামনে ধর্ষণ মামলার শুনানি ছিল। ঠিক তার ঘণ্টা খানেক আগেই নির্যাতিতা যখন আদালতের পথে রওনা দিয়েছেন তখন তাকে জোর করে ফসলের ক্ষেতে নামিয়ে নিয়ে গিয়ে গায়ে পেট্রোল ঢেলে দেয় ধর্ষকের দল। আগুন ধরিয়ে পালিয়ে যায় অভিযুক্তরা। নির্যাতিতার আর্তনাদে প্রত্যক্ষদর্শীরা তাঁকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান। এই ঘটনার এক ঘণ্টার মধ্যে পাঁচ অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তাদের আদালতে পেশ করা হয়েছে। পুলিশে হেফাজতের আবেদনও করা হয়েছে। ধৃতদের মধ্যে ধর্ষণে মূল অভিযুক্ত শিবমও রয়েছে।

এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছেন কংগ্রেসের সাধারণ সচিব প্রিয়াঙ্কা গান্ধী। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ এবং উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথকে কটাক্ষ করে তিনি বলেন, রাজ্যে আইন শৃঙ্খলা তলানিতে এসে ঠেকেছে। ডিজিপি ওপি সিং জানিয়েছেন, ‘এই ঘটনা খুবই দুর্ভগ্যজনক। তিন অভিযুক্তের মধ্যে দু’জন, হরি শংকর ত্রিবেদী এবং শুভম ত্রিবেদীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। একজন পলাতক।’ নির্যাতিতার যাতে সঠিক চিকিত্‍সা হয় তা সুনিশ্চিত করতে ট্রমা সেন্টারে পৌঁছে গিয়েছেন লখনউ জোনের এডিজি। আরও পড়ুন-Unnao Rape Case: জেল থেকে বেরিয়েই উন্নাওয়ের নির্যাতিতাকে পুড়িয়ে মারার চেষ্টা ধর্ষকদের, উত্তরপ্রদেশে শোরগোল

এদিন সকালে সেই ধর্ষণের মামলায় শুনানির জন্য তরুণী যখন আদালতে যাচ্ছিলেন, তাঁর রাস্তা আটকে দাঁড়ায় পাঁচজন। তরুণী সেই সময় ছিলেন রেল গেটের কাছে। তাঁকে টেনে হিঁচড়ে পাশের ধান ক্ষেতের মধ্যে নিয়ে যায় অভিযুক্তরা। সেখানেই তাঁর গায়ে পেট্রল ঢেলে আগুন লাগিয়ে দেওয়া হয়। তরুণীর আর্তনাদে ছুটে আসেন স্থানীয়রা। খবর যায় পুলিশে। তরুণীকে যখন উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় তখন তাঁর শরীরের বেশিরভাগটাই পুড়ে গিয়েছে। পুলিশ জানিয়েছে, তরুণীকে পুড়িয়ে মারার চেষ্টায় অভিযুক্ত পাঁচজনের তিনজন ধর্ষণে অভিযুক্ত। জামিনে ছাড়া পাওয়ার পরেই তারা তরুণীর খোঁজে গ্রামের আশপাশে ঘুরে বেড়াচ্ছিল। এদিনও আদালতে যাওয়ার নির্যাতিতার পিছু নেয় তারা। রেল গেটের কাছে নির্জন জায়গা দেখে সেখানেই তরুণীকে পুড়িয়ে মারার চেষ্টা করে। হাসপাতালে এখন মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন নির্যাতিতা। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন তাঁর শরীরের ৬০-৭০ শতাংশই পুড়ে গেছে। তাঁকে চিকিৎসার জন্য দ্রুত নিয়ে যাওয়া হচ্ছে লখনউতে।