এবার আইএলএফএস মামলায় আজ ইডির দপ্তরে জেরার মুখোমুখি রাজ ঠাকরে, পুলিশি প্রহরায় মুড়ল মুম্বই
রাজ ঠাকরে(Photo Credit: PTI)

মুম্বই, ২২ আগস্ট: আইএলএফএস (IL&FS) দুর্নীতি মামলায় এবার মহারাষ্ট্র নবনির্মাণ সেনার (MNS) প্রধান রাজ ঠাকরেকে(Raj Thackeray) তলব করল ইডি (ED)। আজই ইডির দপ্তরে যাচ্ছেন, তবে প্রিয় নেতাকে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা জেরা করবে এটা মেনে নাও নিতে পারে দলীয় সমর্থকরা। তাই গোটা মুম্বই জুড়েই পুলিশি নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে। যদিও রাজ ঠাকরে দলীয় কর্মী সমর্থকদের উদ্দেশে বলেছেন, কোথাও কোনও জমায়েত না করতে। তবু মুম্বই পুলিশ সতর্ক। যাতে কোনও ভাবে কোনও অপ্রীতিকর পরিস্থিতি তৈরি না হয়। শুধু দক্ষিণ মুম্বই নয়। দাদার সহ সেন্ট্রাল মুম্বইয়ের বহু জায়গায় মোতায়েন করা হয়েছে বিরাট পুলিশবাহিনী। মারাঠা রাজনীতিতে এই এলাকাগুলি এমএনএস-এর দুর্গ বলে পরিচিত।

বৃহস্পতিবার প্রথমার্ধেই ইডি-র দপ্তরে হাজিরা দিতে আসবেন রাজ ঠাকরে। তাই দপ্তরের আশপাশে কোনওরকম উত্তেজনার পরিস্থিতি যাতে তৈরি না হতে পরে সেজন্য মুম্বি পুলিশের তত্ত্বাবধানে ১৪৪ ধারা জারি হয়েছে। উল্লেখ্য গতরাতেই কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী পি চিদম্বরমকে তাঁর বাংলো থেকে গ্রেপ্তার করেছে সিবিআই ও ইডি। রাতভর সিবিআই দপ্তরে থাকার পর আজ তাঁকে আদালতে তোলা হবে। এদিকে রাত পোহাতেই ফের অন্য এক দুর্নীতির মামলায় এবার এমএনএস প্রধান রাজ ঠাকরেকে তলব করল ইডি। এখন দেখার রাজ ঠাকরে কখন জেরার জন্য ইডির দপ্তরে যান। আর জেরার পরেই তিনি হাসি মুখে বেরতে পারছেন কি না তা-ও লাখ টাকার প্রশ্ন। তাঁকে কী গ্রেপ্তার করতে পারে কেন্দ্রী গোয়েন্দা সংস্থা? বিষয়টি এখনই খোলসা না হলেও দেশের বাণিজ্য নগরী জুড়ে চাপা টেনশন শুরু হয়েছে। আরও পড়ুন-আর্থিক দুর্নীতির মামলায় সিবিআইয়ের জালে প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী পি চিদম্বরম, বৃহস্পতিবার তাঁকে আদালতে তোলা হবে

উল্লেখ্য, আইএলএফএস আর্থিক দুর্নীতি মামলায় মহারাষ্ট্র নবনির্মাণ সেনার একাধিক শীর্ষ নেতাকে তলব করেছে কেন্দ্রীয় তদন্ত এজেন্সি এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। এই মামলায় বুধবার গ্রেপ্তার হয়েছেন এমএনএস-এর শীর্ষ নেতা সঞ্জীব দেশপাণ্ডে। সন্দীপকে তাঁর বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করে ইডি। তাঁর পরনে তখন ট্রাউজার আর টি শার্ট। আর টিশার্টের বুকের কাছে লেখা ‘ইডিয়ট হিটলার।’  আইএলএফএস-এ ৪৫০ কোটি টাকা দুর্নীতি হয়েছে বলে অভিযোগ। কোহিনুর টাওয়ার নির্মাণে এই বিপুল পরিমাণ টাকা নয়ছয় হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। ১৩ জন শীর্ষ এমএনএস নেতার নাম জড়িয়েছে এই কেলেঙ্কারিতে। এবার নাম জড়িয়েছে এমএনএস সুপ্রিমো রাজ ঠাকরেরও।