Jharkhand: ৩দিন স্ত্রীর সঙ্গে, ৩দিন বান্ধবীর সঙ্গে; বিবাহ বর্হিভূত সম্পর্কে বিবাদ মেটাতে সমাধান পুলিশের!
(Photo Credits: File Photo)

বিহাহ বর্হিভূত সম্পর্কের (Extra-marital affair) ঝামেলা মেটাতে গিয়ে অবাক কাণ্ড করে বসল ঝাড়খণ্ড পুলিশ (Jharkhand police)। এক ব্যক্তিকে সপ্তাহে তিনদিন নিজের স্ত্রী-র সঙ্গে ও বাকি তিনদিন বান্ধবীর সঙ্গে কাটাতে পরামর্শ দিয়েছে তারা। শুধু তাই নয়, পুলিশ ওই ব্যক্তিকে একদিনের ছুটিও দিয়েছে। ওই দিন তাঁকে কারোর সঙ্গে থাকতে হবে না। দৈনিক জাগরণ প্রতিবেদন অনুযায়ী, রাঁচির কোকার তিরিল রোডের বাসিন্দা রাজেশ মাহাত বিবাহিত হয়েও এক যুবতির সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে। তবে তিনি যুবতিকে জানিয়েছিলেন যে তিনি অবিবাহিত। পরে তিনি স্ত্রী এবং সন্তানকে ছেড়ে প্রেমিকার কাছে থাকতে শুরু করেন।

বিষয়টি নিয়ে স্ত্রী পুলিশের দ্বারস্থ হন। এদিকে, যুবকের বান্ধবীর পরিবারও অপহরণের অভিযোগ দায়ের করে থানায়। এরপরই পুলিশ রাজেশের সন্ধান শুরু করে এবং বান্ধবীর সঙ্গে তাঁকে গ্রেপ্তার করে। যদিও ততক্ষণে বান্ধবীকেও বিয়ে করে ফেলেছেন রাজেশ। বিষয়টি প্রকাশ্যে আসার পরে রাজেশের স্ত্রী ও বান্ধবী ঝগড়া শুরু করেন। দু'জনই পুলিশের হস্তক্ষেপের দাবি জানান। সমস্যার সমাধান হিসাবে, পুলিশ রাজেশকে এক সপ্তাহে তিনদিন স্ত্রীর সঙ্গে, তিনদিন বান্ধবীর সঙ্গে থাকার কথা বলে। তাঁকে একদিনের ছুটিও দেওয়া হয়েছিল। আরও পড়ুন: Kiran Bedi: পুদুচেরির লেফটেন্যান্ট গভর্নর পদ থকে অপসারণের পর কেন্দ্রকে ধন্যবাদ কিরণ বেদির

মজার বিষয় হল, উভয় পক্ষই পুলিশের ওই সমধান চুক্তিতে স্বাক্ষর করেছে। এই চুক্তির নথিও তাঁরা সঙ্গে নিয়ে যান। তবে কিছুদিন পরেই প্রেমিকা রাজেশের বিরুদ্ধে বিয়ের অজুহাতে যৌন নির্যাতনের অভিযোগ এনে এফআইআর করেন। বিষয়টি পরে স্থানীয় আদালতে পৌঁছায় এবং রাজেশের নামে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হয়। বর্তমানে রাজেশ পলাতক রয়েছেন বলে পুলিশ জানিয়েছে।