মাদক পাচারকারীদের ধরতে গিয়ে জনতার গণপিটুনিতে আক্রান্ত ৭ পুলিশ, দেখুন ভিডিও
প্রতীকী ছবি(Photo Credit: PTI)

হরিয়ানা, ১০ অক্টোবর: বড়সড় মাদক চক্রের হদিশ পেয়ে চোরাচালানকারীদের (drug peddlers) ধরতে হানা দিয়েছিল পুলিশ। শেষমেশ সেই পুলিশ বাহিনীকেই গণপিটুনি দিয়ে নাস্তানাবুদ করল মাদক পাচারকারীর দলটি। গ্রামের বাসিন্দাদের সঙ্গে মিলেই এই কুকর্ম করে পিটটান দিল পাচরকারীর দলটি। এই ঘটনার জেরে প্রায় সাতজন পুলিশকর্মী গুরুতর আহত হয়েছেন। আহতরা প্রত্যেকেই ভাটিন্ডা (Bathinda) থানায় কর্মরত। এদিকে পুলিশের মারধরের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় হরিয়ানা পুলিশের বিশাল বাহিনী। পুলিশ জনতা খণ্ডযুদ্ধের পরে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। বুধবার চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে হরিয়ানার সির্সা জেলার দেসু যোধা গ্রামে। এই ঘটনায় গুরুতরভাবে আহত হয়েছেন সাত পুলিশকর্মী। তাঁদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহতদের মধ্যে একজনের আবার গুলি লেগেছে।

জানা গিয়েছে, গোপন সূত্রে পুলিশের কাছে খবর ছিল দেসু যোধা গ্রামে মাদক পাচারকারীরা ট্রামডল ট্যাবলেট পাচার করছে। সোমবার ৬হাজার ট্রামাডোল ট্যাবলেট সমেত দুই মাদক পাচরকারীকে গ্রেপ্তার করেছিল পুলিশ। ধৃতদের জেরা করেই এই বড়সড় চক্রের খবর পুলিশের কাছে আসে। সেইমতো বুধবার দেসু যোধা গ্রামে ফাঁদ পাতে ভাটিন্ডা থানার পুলিশ। তবে শেষ মুহূর্তে কোনওভাবে বিষয়টি জানতে পেরে যায় পাচারকারীর দলটি তারা পালাতে গেলে পুলিশের সঙ্গে গুলি বিনিময় শুরু হয়। এদিকে ক্রস ফায়ারের মুখে পড়ে বেঘোরে প্রাণ হারান বছর ৪৫-এর এক সাধারণ বাসিন্দা। মৃতের নাম জাগ্গি সিং। এই ঘটনায় পুলিশের উপরে বেজায় খেপে যায় গ্রামের বাসিন্দারা। উত্তেজিত জনতা পুলিশকে আক্রমণ করলে প্রথমেই অভিযানকারী দলটি হকচকিয়ে যায়। পালানোরও অবকাশ মেলেনি। আরও পড়ুন-জম্মু-কাশ্মীরে পঞ্চায়েত নির্বাচন বয়কটের কথা ঘোষণা কংগ্রেসের

পুলিশ জনতা খণ্ড যুদ্ধ শুরু হয়। সুযোগ পেয়ে গ্রামের বাসিন্দাদের মধ্যে মিশে গিয়ে পুলিশকেই আক্রমণ করে পাচারকারীর দলটি। তাদের ছোঁড়া গুলিতেই গুরুতর আহত হন এক পুলিশকর্মী। তাঁকে তড়িঘড়ি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে, আহতের অবস্থা আশঙ্কাজনক। এদিকে জনতার রোষে গুঁড়িয়ে গিয়েছে পুলিশের গাড়িও। সুযোগ বুঝে চম্পট দেয় পাচারকারীর দলটি। পুলিশকে মারধরের ঘটনায় এখনও পর্যন্ত কাউকেই গ্রেপ্তার করতে পারেনি। গোটা এলাকা থমথমে থাকায় পুলিশ পিকেট বসানো হয়েছে।