Jharkhand Assembly Election Results 2019: ‘ট্রেন্ডে বিশ্বাস করি না, ঝাড়খণ্ডে সরকার গড়ছে বিজেপি’; বললেন রঘুবর দাস
রঘুবর দাস(Photo Credit: PTI)

রাঁচি, ২৩ ডিসেম্বর: ঝাড়খণ্ডের বিধানসভা নির্বাচনের গণনা চলছে আজ। সন্ধের সময় জানা যাবে জনতা জনার্দন কাকে ক্ষমতায় দেখতে চাইছে। তবে দুপুর পর্যন্ত যা ফলাফল তাতে বিজেপির সূর্য অস্তাচলে। চারিদিকে জোট শিবিরের জয়ধ্বনি শুরু হয়ে গিয়েছে তবে তাতে কি, বিদায়ী মুখ্যমন্ত্রী তথা বিজেপি নেতা রঘুবর দাস (Raghubar Das) কিন্তু কোনওরকম জনমত সমীক্ষা বা ট্রেন্ডসে ভরসা রাখতে রাজি নন। সাফ জানিয়েছেন এখন তো সবে দুপুর, গোটা দিনটা পড়ে আছে। বিকেব নাহলে মন্তব্য করব না তবে। বিজেপিই যে বিরোধী জোট শিবিরকে পর্যুদস্ত করে ফের ঝাড়খণ্ডের মসনদে বসতে চলেছে তাতে তিনি এক প্রকার নিশ্চিত। এএনআই-কে এক সাক্ষাৎকারে সেকথা জানালেন তিনি।

রঘুবর দাস বলেছেন, “এই জোট শিবিরের জেতার ট্রেন্ড কিন্তু চূড়ান্ত নয়। এখনও গণনার অনেকগুলি রাউন্ড বাকি রয়েছে। তাই এখনই এই ট্রেন্ড নিয়ে মন্তব্য করা ঠিক হবে না। পরে রাঁচিতে এনিয়ে সাংবাদিক সম্মেলন করব।” ট্রেন্ড অনুযায়ী জামশেদপুর পূর্বে মাত্র ১৫৬টি ভোটে বিরোধীদের থেকে এগিয়ে রয়েছেন রঘুবর দাস। সারিয়ু রাই তাঁর থেকে এগিয়ে রয়েছেন তবে এনিয়ে যে রঘুবর দাস বিশেষ চিন্তিত নন, তা জানিয়ে দিলেন। তাঁর দাবি, সারিয়ু রাইকে নিয়ে ভয় পাওয়ার কিছু নেই। বিজেপি শিবিরের ভোট কাটার ক্ষমতা তাঁর নেই। তাহলে এত ভোট পেতাম না। তবে শুধু এই কেন্দ্র কেন বিজেপি ঝাড়খণ্ড বিধানসভায় সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে জিতবে। এবং সরকারও গড়বে। বললেন, আত্মবিশ্বাসী রঘুবর দাস। আরও পড়ুন-Jharkhand Assembly Election Results 2019 Latest Trends: ঝাড়খণ্ডে বিধানসভা ভোটের ফলাফলে এখনও পর্যন্ত এগিয়ে জোট, ধুঁকছে গেরুয়া শিবির

এদিকে সোমবার প্রাথমিক ট্রেন্ডে দেখা গিয়েছে, বিজেপির থেকে অনেক এগিয়ে রয়েছে বিরোধীদের মহাজোট। প্রতিবেদন লেখার সময় JMM-কংগ্রেস এগিয়ে রয়েছে ৩৫টি আসনে। আর বিজেপি এগিয়ে রয়েছে ২৮টি আসনে। JVM ও AJSU এগিয়ে রয়েছে যথাক্রমে ৪ ও ৫টি আসনে। পরিস্থিতি ঘোরালো দেখে সক্কাল সক্কালই তত্‍‌পরতা শুরু করে দিয়েছে বিজেপি। তারা প্ল্যান বি-র জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে। JVM ও AJSU-র সঙ্গে তারা যোগাযোগ রাখছে বলে খবর। তবে পরিস্থিতি যা বলছে তাতে জোট শিবিরের পাল্লাই ভারী এমনকী বাবুলাল মারান্ডিও সেদিকেই ঝুঁকবেন। তেমন ইঙ্গিত দিয়ে রেখেছেন।