জম্মু-কাশ্মীরে হামলা করতে ড্রোনের মাধ্যমে ৮০ কেজি অস্ত্রশস্ত্র আকাশপথে পাঠিয়েছে পাকিস্তানের জঙ্গি সংগঠন
পঞ্জাবের রুট ব্যবহার করে হামলার ছক পাকিস্তানের জঙ্গি সংগঠনের। (Photo Credits: ANI)

নয়া দিল্লি, ২৫ সেপ্টেম্বর: জঙ্গি হানা ঘটাতে পাকিস্তানের জঙ্গিরা পাঞ্জাব সীমান্তের রুট ব্যবহার করছে। জম্মু-কাশ্মীর সীমান্ত জুড়ে কড়া সতর্কতা ভারতীয় সেনাবাহিনীর, অনেক চেষ্টা করেও অনুপ্রবেশ করতে পারছে না পাক জঙ্গিরা এবার তাই পাঞ্জাবের পথ ব্যবহার করতে চলেছে পাকিস্তানের জঙ্গিরা। পঞ্জাব রুট দিয়ে জম্মু-কাশ্মীরে সন্ত্রাসবাদী হামলা চালাতে আটটি ড্রোনের মাধ্যমে প্রায় ৮০ কেজি অস্ত্রশস্ত্র (বন্দুক-গুলি সহ) সীমান্ত পাড় করিয়েছে পাকিস্তান ভিত্তিক খালিস্তানি সন্ত্রাসবাদী গোষ্ঠী। সব কিছুই করা হচ্ছে জম্মু-কাশ্মীরকে জঙ্গি হামলা ঘটানোর জন্য। সংবিধানের ৩৭০ ধারা রদ করার পর থেকেই  রাগ প্রকাশ করতে ভারতে জঙ্গি ঢোকাতে মরিয়া পাকিস্তান।

পাকিস্তান থেকে ড্রোনের মাধ্যমে পঞ্জাবে অস্ত্র পাঠানো হয়েছে বলে খবর। গত ৯ থেকে ১৬ সেপ্টেম্বরের মধ্যে আকাশপথ ব্যবহার করে জঙ্গি হানার সরঞ্জামের জোগান দেওয়া হয়েছে বলে নিরাপত্তা এজেন্সি এবং পঞ্জাব পুলিশ জানায়। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে এই বিষয়ে জানিয়েছেন পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দর সিং। আরও পড়ুন-আন্তর্জাতিক মঞ্চে নরেন্দ্র মোদিকে স্বচ্ছতার বড় পুরস্কার

পাকিস্তানের মদতপুষ্ট খালিস্তান জিন্দাবাদ বাহিনী মডিউল ফাঁস করে পঞ্জাব পুলিশ। এই জঙ্গি গোষ্ঠী পঞ্জাব ও সংলগ্ন রাজ্যগুলিতে লাগাতার বড় হামলা চালানোর পরিকল্পনা চালানোর পরিকল্পনা নিয়েছে। সীমান্ত পেরিয়ে অস্ত্রশস্ত্র বোঝাই ড্রোন পাঠানোর ঘটনার তদন্তভার NIA-র ওপর তুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন অমরিন্দর সিং। ড্রোনের মাধ্যমে অস্ত্রশস্ত্র ছাড়াও স্যাটেলাইন ফোন, হ্যান্ড গ্রেনেড, AK-47ও এসেছে বলে খবর। ক দিন আগে পঞ্জাবের তোরান জেলার এক গ্রাম থেকে খালিস্তান জিন্দাবাদ বাহিনীর মডিউলের চার সদস্যকে গ্রেফতারের পর থেকেই একের পর এক চাঞ্চল্যকর তথ্য জানাতে পারে পঞ্জাব পুলিশ।