Bengal Govt Letter To MHA: আলোচনা ছাড়া রাজ্যপালের নিরাপত্তায় কেন আধাসেনা?  সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনার আবেদন জানিয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকে চিঠি নবান্নর
পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল জগদীপ ধানখর। (Photo Credits: Facebook)

কলকাতা, ২৩ অক্টোবর: রাজ্যপাল জগদীপ ধনখরের (Jagdeep Dhankhar) নিরাপত্তার দায়িত্ব নিয়ে চরমে কেন্দ্র-রাজ্য সংঘাত। কেন্দ্রীয় বাহিনীর (Central force) হাতে রাজ্যপালের নিরাপত্তা ছাড়তে নারাজ রাজ্য সরকার। এই মর্মে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকে চিঠি পাঠাল রাজ্য সরকার। চিঠিতে কেন্দ্রীয় সরকারকে আরও একবার সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করে দেখার আবেদন জানানো হয়েছে। ২১ অক্টোবর ওই চিঠি পাঠানো হয়েছে। বুধবার নবান্নের এক প্রবীণ সরকারি আধিকারিক এই চিঠি পাঠানোর বিষয়ে জানান।

১৫ অক্টোবর কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক সিআরপিএফ’কে রাজ্যপালকে জেড ক্যাটাগরির নিরাপত্তা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছিল। সিআরপিএফ(CRPF)-র ২৩৫ ভিএস ব্যাটেলিয়নের উপর সেই দায়িত্ব দেওয়া হয়। এর পরই সংশ্লিষ্ট ব্যাটেলিয়ন রাজ্য পুলিশকে জয়েন্ট সিকিওরিটি রিভিউ মিটিং (Joint review meeting) করতে অনুরোধ করে। ১৮ অথবা ১৯ অক্টোবর বৈঠক চেয়ে দিল্লি থেকে CRPF-র পদস্থ কর্তারাও কলকাতা আসেন। রাজ্য পুলিশের ভিআইপি নিরাপত্তা ডিরেক্টরেটের অফিসারদের সঙ্গে দেখাও করেন সিআরপিএফ কর্তারা। কিন্তু ওই নির্দিষ্ট বৈঠক হয়নি। ২১ অক্টোবর বিকেল ৪ টের সময় বৈঠক হওয়ার কথা থাকলেও, রাজ্য পুলিশ জানিয়ে দেয়, মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি ও প্রাশসনের সিনিয়র আধিকারিকরা উত্তরবঙ্গে থাকায় পর্যালোচনা বৈঠক করা যাচ্ছে না। এরই মধ্যে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকে চিঠি পাঠাল রাজ্য সরকার। আরও পড়ুন: Mamata Banerjee: সুনীল গাঙ্গুলির প্রয়াণ দিবসে শ্রদ্ধা জানিয়ে মমতা ব্যানার্জির টুইট

চিঠিতে কেন রাজ্য সরকারের সঙ্গে কোনওরকম আলোচনা না করেই কেন্দ্রীয় সরকার একতরফা রাজ্যপালের নিরাপত্তায় আধাসেনা মোতায়েনের সিদ্ধান্ত নিল তা জানতে চাওয়া হয়েছে? ২৪ ঘণ্টার খবর অনুযায়ী, চিঠিতে বলা হয়েছে, "রাজ্যের সাংবিধানিক প্রধান হিসেবে রাজ্যপালকে নিরাপত্তা দেওয়া রাজ্য সরকারের দায়িত্ব। রাজ্যপাল দায়িত্ব নেওয়ার প্রথম দিন থেকেই রাজ্য তাঁকে জেড ক্যাটাগরির নিরাপত্তা দিয়ে আসছে। তাহলে হঠাৎ কেন রাজ্যপালের নিরাপত্তায় কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক আধাসেনা মোতায়েনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হল।" নবান্নের তরফে চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে, রাজ্য সরকারের তরফে রাজ্যপালের নিরাপত্তায় কোনও ফাঁক রাখা হয়নি।

৩০ জুলাই পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল হিসেবে দায়িত্ব নেন জগদীপ ধনখর। ১৫ অক্টোবর কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের তরফে এক বিবৃতি জারি করে রাজ্যপালের নিরাপত্তায় আধাসেনা মোতায়েনের কথা জানানো হয়। নির্দেশিকায় বলা হয়, রাজ্যপাল জগদীপ ধনখরের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকবেন ৪ থেকে ৫ জন আধাসেনা। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের এই নির্দেশিকা সামনে আসতেই রুষ্ট হয় রাজ্য। তীব্র প্রতিক্রিয়া জানায় শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস। শাসকদলের নেতা-মন্ত্রীরা এই সিদ্ধান্তের কড়া সমালোচনা করেন। এদিকে নির্দেশিকার পর প্রায় এক সপ্তাহ কেটে গেলেও এখনও রাজ্যপালের নিরাপত্তাভার গ্রহণ করেনি আধাসেনা।