Haryana:  ৫০ কোটির ঋণ শোধ করুন, লোন নিতে ব্যাংকে গিয়ে হতবাক চাওয়ালা
রাজকুমারবাবু (Photo Credits: ANI)

গুরুগ্রাম, ২৩ জুলাই: লকডাউনে ব্যবসাপত্র শিকেয় উঠেছে। সংসার আর চলছে না। উপায় খুঁজে না পেয়ে ব্যাংক থেকে ঋণ নেওয়ার চেষ্টা করেন চায়ের দোকানি রাজকুমার। তবে ব্যাংকে গিয়ে তিনি বেকুব বনে গেছেন। ঋণের আবেদন করার পর তিনি  জানতে পারেন ঋণ পাবেন না। কেন না তাঁর কাছে ব্যাংক ৫০ কোটি টাকা পায়। তিনি নাকি আগেই সেই ঋণ নিয়ে এখনও টাকা মেটাননি। ঋণ নেওয়ার আগেই ৫০ কোটির দায়ভার মাথায় চেপে যাওয়ায় লকডাউনের বাজারে বেজায় বিপাকে পড়েছেন ওই চা বিক্রেতা। তাই কোভিড-১৯ মহামারীতে আর্থিকভাবে বিপর্যস্ত হয়েও তাঁর ঋণের আবেদন বাতিল করল ব্যাংক কর্তৃপক্ষ। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি হরিয়ানার (Haryana) গুরুগ্রামের কুরুক্ষেত্রের।

ব্যাংকে গিয়ে এভাবে ফেঁসে যাওয়ায় চিন্তায় পড়েছেন রাজকুমারবাবু। জানালেন, আর্থিক সমস্যা কাটাতে ঋণের আবেদন করেছিলাম। এখন জানলাম আগেই নাকি ৫০ কোটি টাকা ঋণ নিয়ে রেখেছি। কীকরে এটা সম্ভব হল জানি না। দেশজুড়ে লকডাউনের জেরে ব্যবসার অবস্থা খুব খারাপ। ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা সবথেকে বেশি বিপদে পড়েছেন।

বুধবার রাত পর্যন্ত হরিয়ানায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৭২৪ জন। এই রাজ্যে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ২৮ হাজার ১৮৬। গতকাল সেখানে ৮ জন করোনা রোগীর মৃত্যু হওয়ায় মোট মৃতের সংখ্যা এখন ৩৭২। এর মধ্যে গুরগাঁও-তে মারা গেছেন ১১৮ জন। ফরিদাবাদে ১১৪ জন। রাজধানীর উপকণ্ঠ গুরগাঁওয়ে গতকাল ২ জনের মৃত্যু হয়েছে, ফরিদাবাদেও মৃত ২।