Swati Maliwal Assault Case: স্বাতী হেনস্থাকাণ্ডে কেজরিওয়ালের বাসভবনের সিসিটিভি ফুটেজ বাজেয়াপ্ত করল দিল্লি পুলিশ
Bibhav Kumar and Swati Maliwal (Photo Credits: X)

নয়া দিল্লি, ১৯ মেঃ আম আদমি পার্টির সাংসদ স্বাতী মালিওয়ালের (Swati Maliwal) অভিযোগের ভিত্তিটি শনিবার দিল্লি পুলিশ গ্রেফতার করেছিল মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালের (Arvind Kejriwal) ব্যক্তিগত সহকারী বৈভব কুমারকে (Bibav Kumar)। স্বাতী শারীরিক নিগ্রহের অভিযোগে ধৃত বৈভবকে নিজেদের হেফাজতে নেওয়ার জন্যে আদালতে একাধিক যুক্তি দেয় দিল্লি পুলিশ। এরপর মুখ্যমন্ত্রীর ব্যক্তিগত সহকারীকে ৫ দিনের পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

আরও পড়ুনঃ আপের নেতা-মন্ত্রীদের গ্রেফতারির প্রতিবাদে বিজেপির সদর দফতর অভিযানের ডাক মুখ্যমন্ত্রী কেজরিওয়ালের, বাড়ানো হল নিরাপত্তা, মোতায়েন কেন্দ্রীয় বাহিনী

রবিবার দিল্লি পুলিশের একটি দল তদন্তের স্বার্থে মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালের বাসভবনে যায়। যেখানে গত সোমবার (১৩ মে) সাংসদ স্বাতীকে বৈভব মারধর করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। কেজরির বাসভবনের সিসিটিভি ফুটেজের ডিভিডি বাজেয়াপ্ত করেছে দিল্লি পুলিশ। মুখ্যমন্ত্রী আবাসের সিসি ফুটেজ খতিয়ে দেখতেই সেদিনের সত্যিটা সামনে আসবে বলেই অনুমান সকলের। আদালতে বৈভবের বিরুদ্ধে দিল্লি পুলিশ আরও অভিযোগ করে, গ্রেফতারির একদিন আগেই বৈভব নিজের ফোন ফরম্যাট (ফোন থেকে সমস্ত কিছু মুছে ফেলা) করেছেন। তিনি নিজের ফোন পুলিশের হাতে তুলে দিলেও ফোনের পাসওয়ার্ড এখনও প্রকশ করেননি।

গত ১৩ মে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে তাঁর আবাসে গিয়ে তাঁরই ব্যক্তিগত সহকারী বৈভব কুমারের কাছে শারীরিক নিগ্রহের শিকার হতে হয়েছে মহিলা কমিশনের প্রাক্তন প্রধান স্বাতী মালিওয়ালকে। দিল্লি পুলিশের কাছে এফআইআর দায়ের করে স্বাতী জানান, বৈভব তাঁকে চাড় মেরেছেন, পেটে লাথি পর্যন্ত মেরেছেন। যদিও আপ নেতৃত্ব এই অভিযোগ একেবারেই অস্বীকার করেছেন। তাঁদের দাবি, সেদিন কোনরকম অ্যাপয়েনমেন্ট ছাড়াই মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করতে এসেছিলেন সাংসদ। তাঁর উদ্দেশ্য ছিল কেজরিওয়ালকে কোন এক মিথ্যা অভিযোগে ফাঁসানো।