Karnataka Shocker: ১৫০টি কুকুরকে জীবন্ত কবর, শিবমোগায় শোরগোল
Dogs | Representational Image (Photo Credits: Pixabay)

শিবমোগা, ৯ সেপ্টেম্বর: ১৫০টি সারমেয়কে জীবন্ত কবর (Miscreants Allegedly Bury 150 Dogs Alive)৷ পুলিশ সূত্রের খবর, চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে কর্ণাটকের (Karnataka) শিবমোগা (Shivamogga) এলাকার রঙ্গনাথপুরার কামালাবাদালালু-হসুর গ্রাম পঞ্চায়েতে৷ অকুস্থলের কাছেই ভদ্রাবতী শহর৷ প্রাথমিক তদন্তে অনুমান ঘটনাটি ঘটেছে গত ৪ সেপ্টেম্বর শনিবারে৷ স্থানীয় তামাদিহাল্লি বন এলাকাতেই দুষ্কৃতীরা ওই ১৫০টি কুকুরকে জীবন্ত কবর দেয়৷ লাগোয়া এলাকার বাসিন্দারা সেদিন কুকুরের গণ ডাকাডাকির আওয়াজ পেয়েছেন৷ তবে আচমকাই সেই আওয়াজ বন্ধ হয়ে যায়৷ স্থানীয়রা পশু অধিকার রক্ষায় নিযুক্ত সমাজকর্মীদের কাছে বিষয়টি জানান৷ তবে গোটা ঘটনা তখনই প্রকাশ্যে আসে, যখন ওই সমাজকর্মীরা ঘটনাস্থল পরিদর্শনে আসেন৷ ইতিমধ্যে ভদ্রাবতী গ্রামীণ থানায় বিষয়টি খতিয়ে দেখছে৷ যদিও দেড়শো জীবন্ত কুকুরকে কেন কবর দেওয়া হল, তা জানা যায়নি৷ আরও পড়ুন-Ganesh Chaturthi 2021: গণেশ চতুর্থীর আন্তরিক শুভেচ্ছা, (দেখুন ভিডিও)

প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে যে ঠিকাদারকে পথ কুকুরদের নির্বীজকরণের টেন্ডার দেওয়া হয়েছিল সেই লোকই খরচ কমাতে এই কাজ করেছে৷ এমনিতে ওই গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকা থেকে কুকুর ধরে নিয়ে গিয়ে কোনও নির্জন স্থানে ছেড়ে আসার নিয়ম থাকলেও পুলিশের সন্দেহ এবার পথ কুকুকরদের ধরে নিয়ে গিয়ে বন এলাকায় জীবন্ত কবর দেওয়া হয়েছে৷

এর আগে কর্ণাটকের হাসান জেলায় ৩৮টি বাঁদরকে মৃত অবস্থায় পাওয়া গিয়েছিল৷ ওই বাঁদরদের ব্যাগে করে বনে ছেড়া আসা হচ্ছিল৷ ব্যাগের মধ্যে দম বন্ধ হয়েই ৩৮টি বাঁদের প্রাণহানি ঘটে৷ কর্ণাটক আদালত বিষয়টি জানার পরেই রাজ্য সরকারকে এই ঘটনায় দোষীদের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ করার নির্দেশ দেয়৷ এখনও পর্যন্ত ৭ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ৷