Bizarre: চুরি যাওয়া মহিষের প্রকৃত মালিক কে, জানতে ডিএনএ টেস্টের নির্দেশ দিল পুলিশ
Buffaloes | Image used for representational purpose (Photo Credits: Pixabay)

শামলি, ৬ জুন: এক অদ্ভুত ঘটনা ঘটল উত্তরপ্রদেশের সাহারানপুরের শামলিতে। একটি চুরি যাওয়া মহিষের (Stolen Buffalo) ডিএনএ টেস্টের (DNA Test) নির্দেশ দিল শামলি থানার পুলিশ। ওই মহিষকে পাশের গ্রামে খুঁজে পাওয়ার দাবি জানিয়েছেন পুরাতন মালিক। শ্রমিক চন্দ্রপাল কাশ্যপের অভিযোগ, গত ২০২০-র ২৫ আগস্ট তাঁর গোয়াল থেকে বছর তিনিকের একটি মহিষ চুরি যায়। সেই বছরের নভেম্বর মাসে বিনপুর গ্রামে মহিষটির দেখা পানচন্দ্রপাল কাশ্যপ। তাঁর দাবি চুরি যাওয়া মহিষের বর্তমান মালিক সতবির সিং। যদিও সতবির সিং মহিষের মালিকানা মেনে নিলেও চুরির দাবি মানতে নারাজ।

অতিমারির সময় ঘটনাটি প্রকাশ্যে এসেছিল। কে মহিষটির প্রকৃত মালিক তা জানতে শামলি থানার এসপি সুকৃতি মাধব চন্দ্রপাল কাশ্যপের কাছে থাকা মা মহিষ ও সতবীর সিংয়ের কাছে থাকা পুত্র মহিষের ডিএনএ টেস্টের নির্দেশ দিয়েছে। প্রকৃত মালিককে খুঁজে পাওয়া নিঃসন্দেহে চ্যালেঞ্জের একটা বিষয়। কিন্তু কাশ্যপ যেহেতু দাবি করেছেন তাঁর কাছে চুরি যাওয়া মহিষের মা রয়েছে। তাই ডিএনএ টেস্টের বন্দোবস্ত করা হল।

কী করে কাশ্যপ তাঁর চুরি যাওয়া মহিষকে চিনতে পারলেন, তা নিজেই জানিয়েছেন। তিনি বলেন, মানুষের মতো পশুর শরীরেও বেশকিছু চিহ্ন থেকে যায়। আর গৃহপালিত পশুর চিহ্ন সম্পর্কে মালিকের একটা ধারণা তো থাকবি। প্রথমত মহিষের বা পায়ে একটি কাটা দাগ আছে। লেজের শেষ প্রান্তে সাদা রঙের ছোপ আছে। আর তৃতীয়ত মহিষটির কাছে য়েতেই সে মালিককে চিনতে পেরেছে। এর পরিচয় দিতে আমাকে আর কী প্রমাণ জোগাড় করতে হবে? জানতে চেয়েছেন চন্দ্রপাল কাশ্যপ।