Karnataka Political Crisis: কর্নাটকে ১৪ জন বিক্ষুব্ধের বিধায়ক পদ খারিজ, কাল আস্থা ভোটের আগে চাপমুক্ত মুখ্যমন্ত্রী ইয়েদুরাপ্পা
কর্নাটক বিধানসভার স্পিকার রমেশ কুমার। (Photo Credits: IANS/File)

বেঙ্গালুরু, ২৮ জুলাই: Karnataka Political Crisis: আস্থা ভোটের ঠিক একদিন আগে কর্নাটকে যে কাঁটা ছিল, সেটাও সরে গেল বিজেপি (BJP)-র। আগামিকাল, সোমবার কর্নাটক বিধানসভায় নতুন মুখ্যমন্ত্রী বিএস ইয়েদুরাপ্পা-র আস্থা ভোটের আগে ১৪ জন বিক্ষুব্ধ নেতার বিধায়ক পদ খারিজ হওয়ায় বিজেপি-র আর কোনও কাঁটা থাকল না। ওই বিক্ষুব্ধ নেতাদের বিধায়ক পদ খারিজ হওয়ায় কর্নাটক বিধানসভায় আগামিকাল, ভোট হবে ২০৮ বিধায়কদের নিয়ে।

যাতে ১০৫ জন বিধায়কের সমর্থন থাকলেই ইয়েদুরাপ্পা আস্থা ভোটে জিতবেন। গত মঙ্গলবার, আস্থা ভোটে কংগ্রেস- জেডি(এস) জোটের মুখ্যমন্ত্রী কুমারস্বামী ৯৯-১০৫ ভোটে হেরেছিলেন। মানে বিজেপি-র কাছে ঠিক ১০৫জন বিধায়কের সমর্থন রয়েছে। গত শুক্রবার মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেওয়ার পর কাল, সোমবার আস্থা ভোটের সামনে বিজেপি-র বর্ষীয়ান নেতা ইয়েদুরাপ্পা। আরও পড়ুন-'ধর্ষণ'থেকে বাঁচতে যুবককে খুন করে দেহ মাটির তলায় পুঁতে দিল গৃহবধূ

এদিকে, আগামিকাল, আস্থা ভোট জুড়ে বেঙ্গালুরুতে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। সকাল ৬টা থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত শহরজুড়ে ১৪৪ ধারা জারি থাকবে। কুমারস্বামীর আস্থা ভোটের সময়ও ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছিল। শহরের সমস্ত মদের দোকানও বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল।

আজ, বেঙ্গালুরুতে সাংবাদিক বৈঠক করে স্পিকার রমেশ কুমার জানান, ১৩ জনের বিধায়ক পদ বাতিল করা হয়েছে। তারা হলেন কংগ্রেস বিধায়ক শ্রীমন্ত পাতিলেরও বিধায়ক পদ খারজি হয়েছে। কংগ্রেসের ১১ এবং জেডিএস-এর ৩ বিধায়ক রয়েছেন। এনারা হলেন প্রতাপ জি পাতিল, বিসি পাতিল, এস হেব্বার, এসটি সোমশেখর, এম নাগরাজ, শ্রীমন্ত পাতিল এবং জেডিএস-এর এইচ বিশ্বনাথ, কে গোপালাইয়া, নারায়ণ গৌড়া।

বিধায়ক পদ খারিজ হওয়ায় এই ১৪ জন নেতা এবার সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হচ্ছেন। এই নেতাদের বিধায়ক পদ খারিজ করার স্পিকারের সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে জেডি(এস)। এদিকে, জোর জল্পনা, যে বিজেপি-র চালে আস্থা ভোটে হেরে সিংহাসন হারিয়েছেন কুমারস্বামী, তারা ইয়েদুরাপ্পা-র সরকারকে পিছনে থেকে সমর্থন জানাতে পারে। কুমারস্বামীর কাছে নাকি বেশ কয়েকজন জেডি(এস) বিধায়ক এমন দাবিই জানিয়েছেন।