সব্যসাচী দত্তকে তৃণমূল থেকে বহিষ্কার এখন শুধু সময়ের অপেক্ষা! ঘুরিয়ে মমতাকেই নিশানা বিধাননগরের মেয়র- বিধায়কের
ফিরহাদ হাকিম ও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Photo Credit: Twitter)

কলকাতা, ৭ জুলাই: তৃণমূল কংগ্রেসের বিধায়ক সংখ্যা আরও একটা কমে যাওয়ার পথে। দীর্ঘদিনের জল্পনা সরিয়ে এবার হয়তো শেষ পর্যন্ত বিধাননগরের মেয়র-বিধায়ক সব্যসাচী চক্রবর্তী (Sabyasachi Dutta)-কে দল থেকে বহিষ্কারই করা হতে পারে। খোদ তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)- কে আক্রমণ করায় সব্যসাচীর জোড়া ফুলে ইনিংস শেষ হতে চলেছে বলে জোর জল্পনা। বিধাননগরে দলীয় কাউন্সিলদের সঙ্গে বৈঠকের পর তৃণমূলের শীর্ষ নেতা ফিরহাদ হাকিম সাফ জানালেন, ''কেউ বিশৃঙ্খলা করলে, দল ব্যবস্থা নেবে।''

শুক্রবার সল্টলেকের বিদ্যুৎ ভবনে INTTUC-র বিক্ষোভ কর্মসূচিতে যোগ দেন রাজ্য বিদ্যুৎ কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি তথা বিধাননগরের মেয়র- বিধায়ক সব্যসাচী দত্ত। সেই বিক্ষোভ কর্মসূচিতে সরকারী সম্পত্তি ভাঙচুরের অভিযোগ ওঠে সব্যবাচী দত্তের বিরুদ্ধে। মারাত্মক এই অভিযোগকে ঘুরিয়ে দলনেত্রী-র উদাহরণ টেনে এনে বিস্ফোরক কথা বলেন বিধাননগরের বিধায়ক। আরও পড়ুন- ''পশ্চিমবঙ্গে আমরা এমনিতেই জিতব, রাষ্ট্রপতি শাসন জারির প্রয়োজন নেই'', দাবি বাবুল সুপ্রিয়-র

দল তথা প্রশাসনকে অস্বস্তিতে ফেলে তিনি তুলে এনেছেন দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আন্দোলনের প্রসঙ্গও। সব্যসাচী বলেন, আন্দোলনের এই পথে তিনি হেঁটেছেন দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে অনুসরণ করেই। আন্দোলনে ভাঙচুর প্রসঙ্গে বিধাননগরের বিধায়ক দিদি-র নাম টানায় তৃণমূল নেতারা বিরক্ত। এবার সব্যসাচীকে নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়ার সময় এসেছে বলেও দাবি করছেন তৃণমূলের নীচুস্তরের কর্মীরা। বেশ কয়েক দিন থেকেই সুজিত বসুর সঙ্গে একেবারে সাপ নেউলে সম্পর্ক সব্যসাচীর। রাজ্যে লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূলের খারাপ ফলের পর থেকে নানাভাবে দল বিরোধী মন্তব্য করছেন সব্যসাচী।

রবিবার তাঁকে বাদ দিয়েই তৃণমূল ভবনে বিধাননগরের পুর নিগমের কাউন্সিলরদের নিয়ে তৃণমূল ভবনে বৈঠক ডেকেছেন পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। সেই বৈঠকে সব্যসাচীর বিরুদ্ধে বেশিরভাগ তৃণমূল কাউন্সিলারই মুখ খোলেন বলে শোনা যাচ্ছে। এমন এমনও শোনা যাচ্ছে, বিধাননগরের কাউন্সিলার ফিরহাদকে জানান, "সব্যসাচী থাকলে আমরা নেই।" সব্যসাচীর বিরুদ্ধে সবচেয়ে বেশি সরব হতে দেখা যায় পুরপিতা সুধীর সাহা-কে। বৈঠকের আগে তিনি জানান "তাঁর পদে থাকার যোগ্যতা নেই।" বৈঠকে ঢোকার আগে ক্ষোভ উগরে দিলেন পুরপিতা সুভাস বোস। তিনি বিধাননগর পুরনিগমের মেয়র। অথচ আজ তাঁকে বাদ দিয়েই কাউন্সিলরদের নিয়ে তৃণমূল ভবনে বৈঠক ডেকেছেন পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। বিধাননগরের মেয়র পদ থেকে সব্যসাচী দত্তকে বরখাস্ত করা হতে পারে বলে তুঙ্গে জল্পনা।