Gorkhaland Issue: গোর্খাল্যান্ড ইস্যুতে ত্রিপাক্ষিক বৈঠক ডাকল কেন্দ্র
গোর্খাল্যান্ড ইস্যু (Picture Credits: PTI)

নতুন দিল্লি, ৪ অক্টোবর: গোর্খাল্যান্ড ইস্যুতে (Gorkhaland Issue) এবার কেন্দ্রের হস্তক্ষেপ। আলোচনা চেয়ে রাজ্যকে চিঠি দিল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক (MHA)। রাজ্যের স্বরাষ্ট্রসচিব জিটিএ-র (GTA) প্রিন্সিপাল সেক্রেটারিকে চিঠি। চিঠি পাঠানো হয় গোর্খা জনমুক্তি মোর্চাকেও। বিমল গুরুং-র বাড়ির ঠিকানায় চিঠি কেন্দ্রের। ৭ অক্টোবর সকাল ১১ টায় বৈঠকের ডাক।

কলকাতা ২৪X ৭ এর খবর অনুযায়ী, ইতিমধ্যেই কেন্দ্রের পক্ষ থেকে রাজ্যের স্বরাষ্ট্র সচিব, জিটিএ-র প্রধান সচিব, দার্জিলিংয়ের জেলাশাসক ও গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার সভাপতিকে চিঠি পাঠানো হয়েছে৷ বিমল গুরুংপন্থী গোর্খা জনমুক্তি মোর্চা ও জিএনএলএফ হাজির হয় কিনা তাই দেখার বিষয়৷ কারণ এর আগেও একবার কেন্দ্র জিটিএ নিয়ে একটি ত্রিপাক্ষিক বৈঠকের ডাক দিয়েছিল৷ কিন্তু শেষ পর্যন্ত সেই বৈঠক বাতিল হয়ে যায়৷ আরও পড়ুন, মিশরের সাক্কারাতে মিলল ২,৬০০ বছরেরও বেশি পুরোনো ৫৯টি কফিন, রয়েছে মমিও

উল্লেখ্য, জম্মু-কাশ্মীরকে ভেঙে দুটো পৃথক কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল করার পরই কেন্দ্রের কাছে গোর্খাল্যান্ডের দাবি জানান দার্জিলিং-এর সাংসদ রাজু বিস্তা৷ গোর্খাল্যান্ড না হলেও একটি পৃথক কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের দাবি জানিয়েছেন তিনি৷ এবার গোর্খাল্যান্ড ইস্যুতে আগামী ৭ অক্টোবর নয়াদিল্লিতে ত্রিপাক্ষিক বৈঠকের ডেকেছে কেন্দ্র৷ কেন্দ্রীয় সরকারের এই পদক্ষেপে গোর্খাল্যান্ড তৈরির বিষয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার( গোজমুমো) নেতা বিমল গুরুং বিজেপির অবস্থানকে সমর্থন করে অনেক আগেই গোর্খাল্যান্ড নিয়ে দাবি রেখেছেন৷ গুরুং নেতৃত্বাধীন মোর্চার দাবি, দার্জিলিং পার্বত্যাঞ্চলের স্থায়ী রাজনৈতিক সমাধানের যে প্রতিশ্রুতি বিজেপি দিয়েছিল তা বাস্তবে করে দেখাক তারা।