Karnataka: ছাত্রীর মায়ের সঙ্গে জোর করে শারীরিক সম্পর্ক, অভিযুক্ত সরকারি স্কুলের শিক্ষক
Sex, Representational Images (Photo Credits: Pixabay)

রায়চুর, ৩ জুলাই: ছাত্রীর মায়ের সঙ্গে জোর করে শারীরিক (Sex) সম্পর্ক করে গোপন মুহূর্তের ভিডিও সোশাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দিলেন এক শিক্ষক। ঘটনাটি ঘটেছে কর্নাটকের (Karnataka) রাইচুর জেলায় (Raichur District)। অভিযুক্তের নাম মহম্মদ আজরুদ্দিন (Mohammad Azaruddin)। তিনি সিঙ্গাপুরা সরকারি স্কুলের (Singapura Government School) শিক্ষক। অভিযুক্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে স্কুলের শিশুদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করারও অভিযোগ রয়েছে বলে রবিবার পুলিশ জানিয়েছে।

অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে রায়চুর জেলার শিক্ষা বিভাগ অভিযুক্ত শিক্ষককে সাময়িক সাসপেন্ড করেছে। পুলিশ জানিয়েছে, এক মহিলা অভিযোগ করেছেন যে অভিযুক্ত শিক্ষক প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন যে তিনি তাঁর মেয়েকে টিউশন, সরকারি সুযোগ-সুবিধা পাইয়ে দেবেন। এরপর যৌন সম্পর্ক করতে বাধ্য করেছিলেন। এছাড়াও তিনি ব্যক্তিগত মুহূর্তগুলি রেকর্ড করেছিলেন এবং সহযোগিতা না করলে ভিডিও সোশাল মিডিয়ায় ভাইরাল করে দেওয়ার হুমকি দেন। পরে অভিযুক্ত ভিডিওটি ছড়িয়েও দেন সোশাল মিডিয়ায়। করতাগি থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন ওই মহিলা। আরও পড়ুন: Gurmeet Ram Rahim Singh: জেলের বদলে ডেরা সাচ্চা সৌদার গুরমিত রাম রহিম সিং কি রাজস্থানে, তাহলে সাজা খাটছে কে?

পুলিশি তদন্তে জানা গিয়েছে যে অভিযুক্ত শিক্ষক শিশুদের কঠোর শাস্তি দিত এবং তাদের গোপনাঙ্গ স্পর্শ করে আনন্দ করত। পুলিশ মামলাটির আরও তদন্ত করছে।