CAA Effect In Aligarh City: আজ রাত ১০ টা পর্যন্ত আলিগড় শহরে বন্ধ ইন্টারনেট পরিষেবা
আলিগড় শহরে বন্ধ ইন্টারনেট পরিষেবা (Photo Credits: Flicker)

আলিগড়, ১৬ ডিসেম্বর: নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন (CAA) ঘিরে পুড়ছে গোটা দেশ (India)৷ দেশের বিভিন্ন জায়গায় শুরু হয়েছে প্রতিবাদ বিক্ষোভ৷ রাজধানী দিল্লিতে (Delhi) জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের (Jamia Millia Islamia University) প্রতিবাদের রেশ ইতিমধ্যেই আছড়ে পড়েছে উত্তরপ্রদেশের আলিগড় মুসলিম বিশ্ববিদ্যালয়ে (AMU)। শয়ে শয়ে পড়ুয়া সামিল হচ্ছেন প্রতিবাদ বিক্ষোভে৷ উত্তরপ্রদেশ পুলিশ জানিয়েছে, তাদের লক্ষ্য করে পাথর ছোঁড়েন পড়ুয়ারা। পরিস্থিতি সামলাতে কাঁদানে গ্যাসের সাহায্য নিতে হয় পুলিশকে। পরিস্থিতি ঠেকাতে বিশ্ববিদ্যালয়ে পঠনপাঠন আগামী ৫ জানুয়ারি পর্যন্ত বন্ধ রাখা হবে বলে জানিয়েছেন আলিগড় বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার আব্দুল হামিদ। খালি করে দেওয়া হয়েছে হস্টেল। বিশ্ববিদ্যালয়ের যে পরীক্ষা বাকি আছে তা কবে হবে তা পরে জানাবেন বলে জানিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। এদিকে পুলিশের লাঠি চার্জ এবং কাঁদানে গ্যাস ছোঁড়ায় প্রতিবাদে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন আলিগড় বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীরা৷ সকলে মিলে জমায়াত করেন বাবে স্যার সায়েদ গেটে। চলে লাগাতার স্লোগান৷ এমতাবস্থায় রাজ্যের ছাত্রছাত্রীদের এমন প্রতিবাদের জেরে শহর জুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে রবিবার রাত থেকে ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেয় আলিগড় প্রশাসন। জানা গিয়েছে সোমবার রাত ১০ টা পর্যন্ত বন্ধ থাকবে পরিষেবা।

আলিগড়ের জেলাশাসক চন্দ্রভূষণ সিং এই নির্দেশ জারি করেছেন বলে জানা গিয়েছে। গতকাল রাতে তিনি নির্দেশে বলেছেন, "আলিগড় শহরে আজ রাত দশটা থেকে আগামীকাল রাত দশটা পর্যন্ত ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ রাখা হবে।" এদিকে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, রবিবার অর্থাৎ ১৫ই ডিসেম্বর থেকেই শীতকালীন ছুটি ঘোষণা করা হবে৷ ছুটি চলবে ৫ জানুয়ারি পর্যন্ত৷ শীতের ছুটি (Winter Vacation) শুরু হওয়ার কথা ছিল ২৩ ডিসেম্বর৷ ক্যাম্পাসে অশান্তি এড়াতেই এমন সিদ্ধান্ত৷ উত্তরপ্রদেশের পুলিশ সুপার ওপি সিং এই প্রসঙ্গে বলেন, “আমরা আজ AMU খালি করিয়ে দিচ্ছি। সমস্ত শিক্ষার্থীকে বাড়ি পাঠিয়ে দেব।" তিনি আরও বলেন, “পুলিশ ভাঙচুর করেছে এমন কোনও খবর আমরা পাইনি।" দশজন পুলিশকর্মী এবং প্রায় ৩০ জন পড়ুয়া আহত হয়েছেন। পুলিশ ছাত্রদের হস্টেল খালি করার দাবি করেছে। তিনি আরও জানিয়েছেন, প্রায় ১৫ জন ছাত্রকে গ্রেফতার করা হয়েছে। যারা হিংসায় লিপ্ত ছিল তাদের প্রত্যেককে আমরা চিহ্নিত করব। তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেব।" আরও পড়ুন: Unnao Rape Case: আজ উন্নাও অপহরণ ও গণধর্ষণ মামলার রায়, তিস হাজারি কোর্টে অভিযুক্ত কুলদীপ সিং সেঙ্গার

উল্লেখ্য, রবিবার মধ্যরাতে বিক্ষোভ থামাতে শহর জুড়ে ইন্টারনেট পরিষেবা (Internet Service) বন্ধ হয়ে যাওয়ার পরেই আলিগড় ক্যাম্পাসে ঢোকে পুলিশের অ্যান্টি রায়ট দল। বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মকর্তারা পুলিশের হস্তক্ষেপের জন্য অনুরোধ করতে ক্যাম্পাসে ঢোকে পুলিশ। এদিকে উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ সাধারণ মানুষকে শান্ত থাকার আবেদন জানিয়েছেন। তিনি এও অনুরোধ করেন, ‘নাগরিকত্ব আইন সম্পর্কে গুজব ছড়ানো হচ্ছে। যা অসাধু প্রবণতা।