India-China Standoff: 'গালওয়ানে সেনাদের বলিদান বৃথা হতে দেব না', বার্তা দিলেন ভারতীয় বায়ু সেনার চিফ মার্শাল আরকেএস ভাদাউড়িয়া
ভারতীয় বিমান বাহিনীর চিফ মার্শাল আরকেএস ভাদাউড়িয়া (Photo Credits: ANI)

হায়দরাবাদ, ২০ জুন: গালওয়ান ভ্যালিতে ভারতীয় সেনার মৃত্যতে বায়ু সেনার এয়ার চিফ মার্শাল আরকেএস ভাদাউড়িয়া জানান তারা এর করা জবাব দেবে। তিনি আরও জানান, ভারত শান্তি বজায় রাখার জন্য প্রস্তুত, পাশাপাশি সীমান্তে সেনা মোতায়েন করা হয়েছে। যে কোনও পরিস্থিতিতে তারা লড়তে প্রস্তুত। চিনের হাতে ভারতীয় সেনার ২০ জনের প্রাণ যাওয়ার বিষয়ে এমন মন্তব্য করেন তিনি।

হায়দরাবাদে অনুষ্ঠিত বিমান বাহিনীর বার্ষিক প্যারেড অনুষ্ঠান মঞ্চে দিয়ে তিনি আরও বলেন,"আমরা সকলেই প্রস্তুত রয়েছি। প্রতিপক্ষকে কড়া জবাব দেওয়ার জন্য প্রস্তুত। গালওয়ানে সেনারা জীবন বলিদান দিয়েছেন তাদের জন্য আমরা এবং দেশসেরা সুরক্ষার জন্য আমরা সমস্তকিছু করব।" ভারত-চিনের লাদাক সীমান্তে লড়াইকে একটি 'ছোট স্ন্যাপশট' হিসেবে ব্যাখ্যা করেছেন। আরও পড়ুন, লেহ ও লাদাখ সীমান্তে নজরদারি বায়ুসেনার চপার, যুদ্ধবিমানের, দেখুন ছবি

"আমাদের নিরাপত্তারক্ষীরা যেকোনও পরিস্থিতিতে লড়তে প্রস্তুত। লাদাখ সীমান্তে হামলা একটি ছোট চিত্র ছিল আমরা কিভাবে স্বল্পসময়ে লড়াই এগিয়ে নিয়ে যেতে পারি", বলেও জানান তিনি। লাদাখ নিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির (PM Narendra Modi) ডাকে সর্বদল বৈঠক (All-Party Meet) হল। বৈঠকে ছিলেন ২০টি দলের প্রতিনিধিরা। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ ও প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিংয়ের (Defence Minister Rajnath Singh) পাশাপাশি ছিলেন বিজেপি সভাপতি জে পি নাড্ডা। ছিলেন তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ছিলেন সনিয়া গান্ধি, শরদ পওয়ার, সীতারাম ইয়েচুরি, ডি রাজা, এম কে স্টালিন, মায়াবতী, অখিলেশ যাদব, উদ্ধব ঠাকরে, হেমন্ত সোরেন, নীতীশ কুমার। ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সর্বদল বৈঠকের শুরুতেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ, প্রতিরক্ষমন্ত্রী রাজনাথ সিংহ, অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন, বিদেশমন্ত্রী সহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দ গালওয়ান সংঘর্ষে শহিদ জওয়ানদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

সেখানে প্রধানমন্ত্রী জানান, ভারতের কোনও সেনাচৌকি চিন দখল করতে পারেনি।