Jammu and Kashmir: শিয়রে পশ্চিমী ঝঞ্জা, ভারী বৃষ্টি ও তুষারপাতে বিপর্যস্ত জম্মু ও কাশ্মীর
সিমলায় তুষারপাত (Photo Credit: IANS)

জম্মু, ১৫ নভেম্বর: পশ্চিমী ঝঞ্জার কারণে পুরু বরফে ঢেকেছে ভূস্বর্গ (Jammu and Kashmir)। সেই সঙ্গে চলছে তুমুল বৃষ্টিপাত। আবহাওয়ার যা গতি বিধি তাতে এই পরিস্থিতি আপাতত অব্যাহত থাকবে। সময় যত গড়াবে ততই বাড়বে বৃষ্টিপাত (Heavy rainfall) ও তুষারপাত (snowfall)। একই অবস্থা হিমাচল প্রদেশেও। তুষারের চাদ ও ভারী বৃষ্টিপাত থেকে বাঁচতে সকাল থেকেই ছাতা ও বর্ষাতি নিয়ে পথে নেমে পড়েছেন বাসিন্দারা। আগেই আবহাওয়া দপ্তর জানিয়েছিল নিম্নচাপের কারণে বৃহস্পতিবার থেকে পর পর তিন দিন বৃষ্টি ও তুষারপাত চলবে উপত্যকায়। শুক্রবার সকাল থেকেই শুরু হয়েছে বৃষ্টি।

সাধারণত চলতি মরশুমে যে ধরনের আবহাওয়া জম্মু ও কাশ্মীরের বিস্তীর্ণ অঞ্চলে থাকে, তার থেকে একেবারেই আলাদা। স্বাভাবিকের তুলনায় তাপমাত্রাও অনেকটা নেমেছে। গত সপ্তাহেই প্রথম মরশুমের তুষারপাত হয়েছে। এখন তাপমাত্রা ৭.২ ডিগ্রি সেলসিয়াসে নেমেছে। কয়েকদিন আগেই ছিল ৭.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। রিয়াসি জেলার বৈষ্ণোদেবীর মন্দিরে এখন পুণ্যার্থীদের যাওয়ার সময়। কিন্তু আচমকা আবহাওয়ার অবনতিতে রাস্তা বন্ধ হয়ে গিয়েছে। টানা বৃষ্টি ও ভারী তুষার পাতে রাস্তাকে আলাদ করে চেনাই যাচ্ছে না। তাই মন্দির চত্বরে থেকে তীর্থযাত্রীদের উদ্ধার করে কাটরা শহরে নিয়ে আসা হচ্ছে। সেখানেই করা হয়েছে বেসক্যাম্প। আরও পড়ুন-Delhi Air Pollution: জোড়-বিজোড় নীতির শেষ দিনেও রাজধানীতে চড়া দূষণ, মুক্ত আকাশ পেতে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি পড়ুয়াদের

এদিকে গত এক সপ্তাহ ধরে ভারী তুষারপাত চলছে হিমাচল প্রদেশে (Himachal Pradesh)। গত তিন দিন ধরে ভারী তুষারপাতে বিপর্যস্ত কুলু জেলার রোটাংপাস ও মারহি এলাকা। আবহাওয়া দপ্তর সুত্রের খবর, আগামী ৪৮ ঘণ্টাতেও টানা বৃষ্টি ও ভারী তুষারপাত থেকে রেহাই পাচ্ছে না হিমাচল প্রদেশ। তবে ১৫ তারিখ অর্থাৎ আজকের দিনে হিমাচলের আবহাওয়ার পরিস্থিতি বিশেষ খারাপ হতে চলেছে বলেই মনে করছে হাওয়া অফিস। পূর্বাভাসেও তেমনটাই জানানো হয়েছে। সেকারণেই সিমলা আবহাওয়া দপ্তরের দাবি শুক্রবার আপার ও লোয়ার হিমাচলের বিস্তীর্ণ এলাকায় চলবে ভারী বৃষ্টিপাত। টানা তুষারপাতের জেরে বেশকিছু নির্জন এলাকার যোগাযোগ ব্যবস্থা বিপর্যস্ত হয়ে যেতে পারে।