Uttar Pradesh: মুসলিম মহিলাদের 'অপহরণের' পর 'ধর্ষণের' হুমকি, বিতর্কিত মন্তব্যের পর গ্রেফতার ধর্মগুরু
Hindu Priest ([Photo Credit: Twitter)

লখনউ, ৮ এপ্রিল:  মুসলিম (Muslim)মহিলাদের অপহরণ করে ধর্ষণের (Rape)  হুমকি দিলেন উত্তরপ্রদেশের এক  হিন্দু (Hindu) ধর্মগুরু। উত্তরপ্রদেশের (Uttar Pradesh) সীতাপুরে ওই হিন্দু ধর্মগুরু যখন মুসলিম মহিলাদের 'অপহরণের' পর 'ধর্ষণের' 'নিদান' দেন, সেই ভিডিয়ো প্রকাশ্যে আসতেই তা ভাইরাল হয়ে যায়। লখনউয়ের ওই হিন্দু ধর্মগুরুকে কেন গ্রেফতার করা হয়নি, তা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করে। ওই ঘটনার ৬ দিন পর চাপে পড়ে অবশেষে গ্রেফতার করা হয় লখনউয়ের ওই হিন্দু ধর্মগুরুকে। তাঁর বিরুদ্ধে দায়ের করা হয়েছে অভিযোগও। মুসলিম মহিলাদের (Women) বিরুদ্ধ হিংসা ছড়ানোর পর কেন ওই হিন্দু ধর্মগুরুকে গ্রেফতার করা হল না সঙ্গে সঙ্গে, তা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করে বিভিন্ন মহলের তরফে।

সম্প্রতি একটি ভিডিয়ো (Video) ভাইরাল হয়। যেখানে উত্তরপ্রদেশের একটি মসজিদের বাইরে দাঁড়িয়ে মুসলিম মহিলাদের বিরুদ্ধে হিংসা ছড়ানোর অভিযোগ ওঠে ওই হিন্দু ধর্মগুরুর বিরুদ্ধে। মাথায় গেরুয়া কাপড় বেধে মুসলিম মহিলাদের অপহরণ ও ধর্ষণের নিদান দেন ওই ব্যক্তি। যা নিয়ে ইতিমধ্যেই জোর শোরগোল শুরু হয়ে যায়। প্রসঙ্গত বিতর্কিত ওই ব্যক্তি বলেন, যদি কোনও মুসলিম হিন্দু মেয়েদের উত্যক্ত করে, তাহলে তিনি পদক্ষেপ করবেন। হিন্দুদের উত্যক্ত করার অভিযোগে মুসলিম মহিলাদের অপহরণের পর ধর্ষণ করা হবে বলে তিনি হুমকি দেন (ভিডিয়ো অনুযায়ী)।

আরও পড়ুন:  Cargo plane Breaks: অবতরণের সময় ২ টুকরো হয়ে গেল কার্গো বিমান, দেখুন ভয়ঙ্কর ভিডিয়ো

অভিযোগ, ওই হিন্দু ধর্মগুরু যখন মুসলিম মহিলাদের বিরুদ্ধে হিংসা ছড়ান, সেই সময় তাঁর আশপাশে 'জয় শ্রীরাম ধ্বনি' দিতে শুরু করেন একদল। যা নিয়ে জোর শোরগোল শুরু হয়ে যায়।